ডেস্ক: এদিন জোরা ভূমিকম্পের জেরে কেঁপে উঠল ইরাক ও ইরান সীমান্ত। কম্পনের জেরে ভেঙে পড়েছে বহু বাড়ি এবং আহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪০০ জনেরও বেশি। তবে ইরাক-ইরান সীমান্তে এই প্রথম জোরা ভূমিকম্প হয় নি। জানা গিয়েছে, গত বছরই কেরমেনশাহতেই জোরালো ভূমিকম্প হয়। কম্পনের মাত্রা ছিল ৭.৩। তীব্র ভুমিকম্পের জেরে প্রাণ হারায় ৬০০ জন মানুষ।

সূত্রের খবর, রবিবার হঠাৎই কেঁপে ওঠে পশ্চিম ইরানের কেরমানশাহ প্রদেশের ইলাম শহর। উত্তর- পশ্চিমে ভূমি থেকে ৬৫ কিমি গভীরে এই তীব্র ভূমিকম্প হয়। ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৩ এবং তার জেরেই আশে পাশের বেশিরভাগ বাড়ি ভেঙে পড়তে শুরু করে। আতঙ্কে মানুষ ঘর ছেড়ে বাইরে চলে আসে নিজেদের প্রাণ বাঁচানোর জন্য।

উদ্ধার কাজের জন্য নামানো হয়েছে বেশ কয়েকটি দল। তাদের বক্তব্য, জোরালো ভূমিকম্পের জন্য মানুষ আহত হয় নি। আতঙ্ক এবং দৌড়ানোর কারণেই বেশিরভাগ মানুষ আহত হয়েছেন। তাছাড়াও ইরানের আশে পাশের এলাকায় ভূমিকম্প হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here