Home Featured পর্ন ছবি তৈরির ক্ষেত্রে রাজের সঙ্গে শিল্পার প্রত্যক্ষ যোগ! খতিয়ে দেখছে পুলিশ

পর্ন ছবি তৈরির ক্ষেত্রে রাজের সঙ্গে শিল্পার প্রত্যক্ষ যোগ! খতিয়ে দেখছে পুলিশ

0
পর্ন ছবি তৈরির ক্ষেত্রে রাজের সঙ্গে শিল্পার প্রত্যক্ষ যোগ! খতিয়ে দেখছে পুলিশ
Parul

মহানগর ডেস্ক: পর্ন ছবি তৈরির অভিযোগে শিল্পা শেট্টির স্বামী তথা শিল্পপতি রাজ কুন্দ্রাকে সোমবার গ্ৰেপ্তার করে 

মুম্বই পুলিশ। এ বার এই গোটা ঘটনায় অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি-র কোনো ভূমিকা রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এক সাংবাদিক বৈঠকে মঙ্গলবার মুম্বই পুলিশের জয়েন্ট কমিশনার মিলিন্দ ভারাম্বে জানান, এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত শিল্পার কোন‌ও প্রত্যক্ষ ভূমিকা বা যোগসূত্র পাওয়া যায়নি। তবে তদন্ত চালানো হচ্ছে।

 

এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে মিলিন্দ বলেন, “এখনও পর্যন্ত শিল্পার কোনও প্রত্যক্ষ যোগাযোগ নেই। তবে আমরা তদন্ত করছি। আমরা আবেদন করছি, ভুক্তভোগী সকলে এগিয়ে আসুন। মুম্বইয়ের ক্রাইম ব্রাঞ্চে যোগাযোগ করুন। আমরা উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।”

 

এই ঘটনায় প্রথমে তদন্ত করে মালবানি পুুলিশ এবং পরে দ্বায়িত্ব নেয় ক্রাইম ব্রাঞ্চ সিআইডি এবং প্রপার্টি সেল। তদন্তের প্রেক্ষিতে রাজ সহ এখনও পর্যন্ত মোট ১২জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্ৰেপ্তারের তালিকায় রয়েছেন রাজের টেকনিক অ্যাসোসিয়েট রায়ান জে থার্প, অভিনেত্রী গেহনা বশিষ্ঠ, ইয়াসমিন আর খান, মোনু যোশি, প্রতিভা নালাভাদে, এম আতিফ আহমেদ, দীপঙ্কর পি খাসনবিশ, ভানুসূর্য ঠাকুর, তানভির হাসমি, হটশট-এর প্রযোজক উমেশ কামাথ। 

 

এই হটশট অ্যাপের প্রযোজক, তাঁর আ্যপের ডেসক্রিপশন সাজিয়েছেন খানিকটা এরকমভাবে। লেখা রয়েছে, ‘ওয়ার্ল্ডস্ ফার্স্ট এইট্টিন প্লাস অ্যাপ’। অর্থাৎ সমস্ত হট মডেল, বিশ্বজুড়ে সেলেবদের এক্সক্লুসিভ ছবি, শর্ট ফিল্ম, বিভিন্ন প্রাপ্ত বয়স্কদের ভিডিও দেখা যাবে এই আ্যপে। 

 

তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ আরও তথ্য খুঁজে পেয়েছেন, রাজের এক আত্মীয় প্রদীপ বক্সী ইংল্যান্ডে কেনরিন প্রোডাকশন হাউজ নামে একটি কোম্পানি চালান। ওই কোম্পানির চেয়ারম্যান পদে থাকার পাশাপাশি রাজেরও বিজনেস পার্টনার ছিলেন তিনি। রাজ এবং প্রদীপের হোয়াটস্অ্যাপ চ্যাটে পর্ন ছবি তৈরির জন্য টাকার লেনদেন-র কথা বার্তা ফাঁস করেছে পুলিশ।

 

পর্ন ছবি বানানোর এবং তা নেট মাধ্যমে ছড়ানোর জন্য আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত রাজ কুন্দ্রাকে পুলিশি হেফাজতে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শুধু রাজ নন, তার সঙ্গে মঙ্গল বার গ্ৰেপ্তার করা হয় রায়ান থার্পকে। তাঁকেও হেফাজতে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় পুলিশ। 

 

 ২০২১ সালে ফেব্রুয়ারিতে মুম্বইয়ের ক্রাইম ব্রাঞ্চে রাজের বিরুদ্ধে পর্ন ফিল্ম তৈরি এবং কয়েকটি অ্যাপের মাধ্যমে তা প্রকাশের বিষয়ে এক মামলা দায়ের করা হয়েছিল। ১৯ তারিখে এই মামলার মূল ষড়যন্ত্রকারী হিসাবে রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপরে তাঁকে মুম্বই পুলিশের অপরাধ শাখার অন্তর্ভুক্ত জেজে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here