নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা: রাজ্যসভা ভোটে পঞ্চম আসনে প্রার্থী দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রাখল তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপি। আসন্ন রাজ্যসভা নির্বাচনে পঞ্চম আসনে কোনও নির্দল প্রার্থী দাঁড়ালে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস তাকে সমর্থন করতে পারে বলে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন। অন্যদিকে রাজ্যসভা ভোটে তাঁরা প্রার্থী দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে জল্পনা উস্কে দিয়েছেন বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ।

বৃহষ্পতিবার বিধানসভায় সাংবাদিকদের পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘আমাদের দুজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, আগামীকাল তিনজনও মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেন। কোনও নির্দল প্রার্থীকেও সমর্থন করতে পারি আমরা। এখনই কিছু বলা যাবে না’। এর পরই বাংলার রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে কী জোট প্রার্থীকে সহজে রাস্তা ছাড়বে না শাসকদল? এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে বিধানসভার অলিন্দে।

এদিকে গতকাল তৃণমূল কংগ্রসের প্রার্থী সুব্রত বক্সী ও দীনেশ ত্রিবেদী মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরে এদিন বাম ও কংগ্রেস সমর্থিত জোট প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বিধানসভার সচিব অভিজিত সোম-এর কাছে মনোনয়ন জমা দেন। বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী ও বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান প্রস্তাবক হিসাবে মনোনয়ন পত্রে স্বাক্ষর করেন। আগামীকাল মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে তৃণমূল কংগ্রেসের দুই ঘোষিত প্রার্থী মৌসম বেনজির নুর ও অর্পিতা ঘোষ মনোনয়ন জমা দেবেন। তবে পঞ্চম আসনে কোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেবেন কিনা এখন সেটাই দেখার। ২৬ মার্চ ভোট গ্রহন করা হবে।

১৩ মার্চ রাজ্যসভা নির্বাচনে মনোনয়ন পেশের শেষ দিন। রাজ্যের পাঁচ ফাঁকা আসনে ইতিমধ্যেই তৃণমূলের দুই প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদী ও সুব্রত বক্সি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বাকি তিনটি আসনের মধ্যে দুটি তৃণমূল ও একটিতে বাম-কংগ্রেস জোট প্রার্থীর দাঁড়ানোর কথা। সংখ্যার নিরিখে তৃণমূলের চার আসনে জয় পাকা। কিন্তু পঞ্চম আসনে বামেদের থাকলেও সেখানে ভোট হলে তাঁদের জেতা মুশকিল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। পঞ্চম আসনে বাম-কং জোট প্রার্থী কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। কিন্তু তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের এদিনের মন্তব্যে ভোটাভুটির ইঙ্গিতই মিলছে। এদিকে পঞ্চম আসনে প্রার্থী দেওয়া নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রেখেছে বিজেপিও।

এব্যপারে প্রশ্ন করা হলে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘এখনও প্রার্থী দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে আমরা মনোনয়নপত্র তুলেছি। প্রয়োজনে তা জমা দেওয়া হবে।’ তবে নির্দিষ্ট ভাবে কোনও প্রার্থীর নাম তাদের ভাবনায় আছে কিনা তা নিয়ে মন্তব্য করতে রাজী হননি দিলীপ ঘোষ। বরং জল্পনা উস্কে দিয়ে তাঁর মন্তব্য ‘রাজ্যসভার প্রার্থী যে কেউ হতে পারেন। আপনারাও হতে পারেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here