ডেস্ক: ভারতের সবথেকে ‘দামী’ বিয়ের সাক্ষী থাকল গোটা বিশ্ব। প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ের সপ্তাহ না ঘুরতে ঘুরতেই সেই যোধপুর-উমেদভবনেই বসেছে মুকেশ-নীতা অম্বানি কন্যা, ঈশা অম্বানির বিয়ের আসর। রাজকীয় সাজে সেজে উঠেছে পুরো রাজস্থানই। ছোটবেলার বন্ধু আনন্দ পিরামলের সঙ্গেই আজ চার হাত এক হতে চলেছে তাঁদের। বিয়ের তারিখের আগেই ধুমধাম করে যোধপুরে বেশ কয়েকদিন ধরে চলছিল তাঁদের বিয়ের প্রি-ওয়েডিং সেলিব্রেশন।

ভারতের সবথেকে ‘বড়লোক’ ব্যক্তি, মুকেশ অম্বানির মেয়ের বিয়ে বলে কথা, সেই বিয়েতে চোখ ধাঁধানো বাহুল্যতা তো থাকবে সেটাই তো স্বাভাবিক! শুধু এক-একটি বিয়ের কার্ডের জন্যই খরচ হয়েছিল ৩ লক্ষ করে, সেই কার্ড আবার আমন্ত্রিতদের কাছে পৌঁছেছিল আলাদা আলাদা ডিজাইনার বাক্সে, যার এক-একটির মূল্য ১২ লক্ষ! তবে ধনকুবের অম্বানি তাঁর মেয়ের বিয়ের আয়োজনে মোট কত টাকা খরচ করেছেন জানলে চোখ উঠবে কপালে! জানা যাচ্ছে, সব মিলিয়ে মোট ১০০ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছেন তিনি, ভারতীয় টাকায় যে অঙ্কটা দাঁড়ায়, তাতে গননা যন্ত্রও নড়ে যেতে বসেছে। এক আন্তর্জাতিক পত্রিকার নিরীখে ৩৭ বছর আগে প্রিন্স চার্লস ও ডায়ানা’র বিয়েতে খরচ হয়েছিল ১১০ মিলিয়ন, আর তারপরই ১০০ মিলিয়ন খরচ করে তালিকায় উঠে এল অম্বানি-কণ্যার ‘মূল্যবান’ বিয়ে।

অবশ্য এই খরচের জেরে অম্বানিকে বিতর্কের মুখেও পড়তে হচ্ছে, অনেকের মতেই ‘টাকা আছে বলেই, এভাবে মেয়ের বিয়েতে টাকা খরচ করার কোনও মানেই নেই!’, আবার কারো কারো মতে, ‘ভারতের মতো দেশে এত আড়ম্বর মানায় না।’
তবে সব শত্রুর মুখে ছাই দিয়ে জরকদমে চলছে ঈশা-আনন্দের বিয়ের অনুষ্ঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here