ডেস্ক: ভারতের এয়ার স্ট্রাইকের পরও কোনও পাকিস্তানের পক্ষে কথা বলেনি। এতে প্রমাণ হয় চিন ও আমেরিকা সহ সমস্ত দেশ সন্ত্রাসবাদের স্বর্গরাজ্য পাকিস্তানের বিষয়ে ধৈর্য হারিয়ে ফেলছে। মঙ্গলবার ভোররাতের দিকে পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে ৮০ কিলোমিটার দূরে খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বালাকোটে হামলা চালিয়ে জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি গোষ্ঠীর বেশ কিছু শক্তপোক্ত ঘাঁটি ধ্বংস করেছে ভারতীয় বায়ুসসেনা। এরফলে জঙ্গিদের বেশ কিছু সিনিয়র জঙ্গি প্রশিক্ষককে নিকেশ করা হয়েছে। স্বাধীনতার পর ১৯৭১ সালে প্রথম ভারতীয় সেনার তরফে পাকিস্তানের মাটিতে হামলা চালানো হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর, পাকিস্তানের প্রাক্তন অ্যাম্বাসাডার হুসেন হাক্কানির একটি বিবৃতি দিয়ে বলেছেন কোনও দেশই ভারতের তরফে এয়ার স্টাইক চালানোর পর কোনও দেশই পাকিস্তানের পাশে এসে দাঁড়ায়নি। এমনকি ভারুতীয় বায়ুসেনা পাকিস্তানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করাআর পরও চিন পাকিস্তানের পাশে না দাঁড়িয়ে দুই পক্ষকেই সংযত থাকার উপদেশ দিয়েছেন। হুসেন হাক্কানির সঙ্গে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সম্পর্ক মোটেই মধুর নয় এবং তিনি প্রায়শই পাকিস্তানের মৌলবাদীদের কাছ থেকে হুমকি পেয়ে থাকেন।

হাক্কানির অভিমত, উগ্র জাতীয়তাবাদী মানুষরা মেনে না নিলেও একথা সত্যি যে সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গ রাজ্য সম্পর্কে সারা পৃথিবীর আস্থা ও বিশ্বাস ক্রমেই তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here