ju bengali news kolkata

Highlights

  • রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বনাম যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বন্দ্ব অব্যাহত
  • খোলা চিঠিতে রাজ্যপালকে বহিষ্কারের দাবি করা হয়েছে যাদবপুরের তরফে
  • যাদবপুরে বাধা পেয়ে অভিমানী ধনকড়ের পুরো রাগ গিয়ে পড়েছে রাজ্য সরকারের ওপর

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বনাম যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বন্দ্ব অব্যাহত। ‘বিজেপির দালাল রাজ্যপাল’-এর হাত থেকে সমাবর্তনে পদক নেওয়ার কথা আগেই অস্বীকার করেছিলেন কৃতি পড়ুয়ারা। এবার তাঁর সাম্মানিক আচার্য পদ থেকেও বহিষ্কারের দাবি তোলা হয়েছে। কেননা তিনি কেন্দ্রীয় সরকার তথা বিজেপি-র এজেন্টের ভূমিকা এই রাজ্য পালন করছেন বলে দাবি পড়ুয়াদের। সম্প্রতি একটি খোলা চিঠিতে রাজ্যপালকে বহিষ্কারের দাবি করা হয়েছে যাদবপুরের তরফে। সমাবর্তনের মঞ্চেই অবশ্য নাগরিকত্ব আইনের কপি ছিঁড়ে ‘গোল্ড মেডেলিস্ট’ দেবস্মিতা চৌধুরী বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তারা এমনটাই করবেন।

মঙ্গলবার সমাবর্তনে অংশ নেওয়ার জন্য যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়েন বিতর্কের শিরোমণি ধনকড়। উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে উদ্দেশ্য করেও একাধিক আপত্তিজনক শব্দের ব্যবহার তিনি করেছিলেন বলে জানা যায়। এরপরই আচার্য পদ থেকে রাজ্যপালকে বহিষ্কারের দাবিতে ফেটে পড়ে যাদবপুর। পড়ুয়াদের তরফে রাজ্যপালকে নিশানায় নিয়ে একটি খোলা চিঠি লেখা হয়। যেখানে জগদীপ ধনকড়কে ‘মেরুদণ্ডহীন’, ‘বিজেপির দালাল’-এর মতো বিশেষণ ব্যবহার করে বিঁধেছে পড়ুয়ারা। চিঠিতে লেখা হয়েছে, ‘আপনাকে (রাজ্যপাল) হচ্ছে যে যাদবপুর ইউনিভার্সিটির আচার্য পদ থেকে আপনাকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠন আপনাকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যপালের পদ থেকে বঞ্চিত করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

চিঠিতে আরও লেখা হয়েছে, রাজ্যপালের সাধারণ জ্ঞান বা তর্ক করার ক্ষমতা নেই। তিনি ইতিহাস বোধ শূন্য, ছাত্র, কর্মী ও মুসলমানদের প্রতি সহিংসতার মনোভাব রয়েছে তাঁর। অন্যদিকে যাদবপুরে বাধা পেয়ে অভিমানী ধনকড়ের পুরো রাগ গিয়ে পড়েছে রাজ্য সরকারের ওপর। তিনি দাবি করেছেন, রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এই নিয়ে আলোচনা করতে ১৫ দিনের মধ্যেই ডাকও পাঠিয়েছেন তিনি। তবে সেই ডাকেও তৃণমূল সুপ্রিমো সাড়া দেবেন কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here