kolkata bengali news

Highlights

  • তাঁর হাত থেকে কোনও ডিগ্রি নেবে না ছাত্র-ছাত্রীরা
  • ধনকড় ‘দাঙ্গার সমর্থক’, বিজেপি-আরএসএস-র হয়ে কাজ করেন
  • তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে এলে কালো পতাকা, কালো ব্যাজ পরে প্রতিবাদ করা হবে

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজ্যপাল হিসেবে রাজ্যে এসেই যাদবপুর কাণ্ডে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন জগদীপ ধনকড়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ে যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছিল সেখানে বাবুলকে ‘উদ্ধার’ করতে এসে যেমন শাসকদলের চক্ষুশূল হয়েছিলেন তিনি, তেমনই পড়ুয়াদের কাছেও এক পলকেই ‘ভিলেন’ হিসেবে পরিচিতি পেতে হয়েছিল তাঁকে। রাজ্যপালের সেই অ্যাকশনেরই রিঅ্যাকশন দিল যাদবপুরের পড়ুয়ারা। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে বয়কট করবে তারা, তাঁর হাত থেকে কোনও ডিগ্রি নেবে না ছাত্র-ছাত্রীরা।

আগামী ২৪ ডিসেম্বর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তম অনুষ্ঠান। সেই অনুষ্ঠানে হাজির থাকার কথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের। পড়ুয়াদের দাবি, একাধিকবার বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ বিষয় নাক গলাচ্ছেন রাজ্যপাল। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যপাল সর্বদা লাইমলাইটে আসার চেষ্টায় রয়েছেন। তিনি এ রাজ্যে আসা থেকে বিজেপি-আরএসএস-র হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন, অন্তত তাঁর কার্যকলাপে সেটাই প্রমাণ হচ্ছে। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সব ইস্যু বাদ দিয়ে তিনি শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের সঙ্গে বিতর্ক বাঁধান। যাতে অন্য ইস্যুগুলি ঢাকা পড়ে যায়। পড়ুয়াদের ক্ষোভ, রাজ্যপাল একবারও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতি বা উন্নতির স্বার্থে কোনও কথা বলেননি। তাই তাঁকে বয়কট করার ভাবনা।

জানা গিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে আবেদন করা হয়েছে যাতে তারা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে না ডাকেন। কিন্তু স্বাভাবিক নিয়ম অনুসারে উপাচার্য হিসেবে আমন্ত্রিত থাকবেন জগদীপ ধনকড়। তাই তাঁর হাত থেকে কোনওরকম ডিগ্রি বা সম্মান নিতে নারাজ পড়ুয়ারা। একইসঙ্গে, তারা বাকিদেরও রাজ্যপালকে বয়কট করার অনুরোধ জানিয়েছে। তাদের কথায়, ধনকড় হলেন ‘দাঙ্গার সমর্থক’। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে এলে কালো পতাকা, কালো ব্যাজ পরে প্রতিবাদ করা হবে এবং এনআরসি, সিএএ, এনপিআর বিরোধী স্লোগানও তোলা হবে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here