kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আন্তর্জাতিক চাপের মুখে ভোল বদল৷ নাম বদলে ফেলল জঙ্গি সংগঠন জইশ ই মহম্মদ৷ তাদের নতুন নাম মজলিস উয়ারাসা ই সুহাদা জম্মু ওয়া কাশ্মীর৷ জঙ্গি সংগঠনের দায়িত্ব মাসুদের ভাই আবদুল রউফ আসগার হাতে নেওয়ার পর এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়৷ বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইকের পর মাসুদ আজহার পাক এজেন্সির প্রোটেকটিভ কাস্টডিতে ছিল বলে খবর পাওয়া যায়৷ ভারতে পাকিস্তান বড়সড় হামলার ছক কষার পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে খবর৷

ভারতের কাউন্টারটেরর এজেন্সির মতে, নতুন নামে আত্মপ্রকাশ করলেও জইশের শীর্ষস্থানীয় নেতৃত্বে কোনও পরিবর্তন হয়নি, বদলায়নি জঙ্গি ক্যাডারও। জইশের এক নেতা মৌলানা আবিদ মুখতার চলতি বছরে কাশ্মীরে আয়োজিত একটি র‌্যালিতে ভারত, আমেরিকা এবং ইজরায়েলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।

পাকিস্তান সূত্র মারফত খবর, ভারতে আত্মঘাতী হামলার জন্যে জইশ ৩০ জনকে তৈরি করেছে। তাদের প্রধান টার্গেট জম্মু-কাশ্মীরে সামরিক ক্যানটনমেন্ট এবং সেনাবাহিনীর কনভয়। আসগার চলতি মাসের শুরুর দিকে বালাকোটে ফের সক্রিয় করেছে মারকাজ সৈয়দ আহমদ শাহিদ ট্রেনিং ক্যাম্প। ভারতের নিরাপত্তায় হামলা চালানোর জন্যে ভাওয়ালপুর এবং শিয়ালকোট থেকে নতুন সদস্য নিয়োগ করছে তারা। মাসুদ আজহার ভারতে একাধিক জঙ্গি হামলা ঘটিয়েছে৷ এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ২০১৬-র পাঠানকোট এয়ারবেসে হামলা৷ ২০০৭ সালে আবদুল রউফ জইশের দায়িত্ব নেয়৷ আজহার আন্ডারগ্রাউন্ডে চলে যাওয়ার পর তার হাতে দায়িত্ব আসে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here