ডেস্ক: দিন নেই, রাত নেই, যখন পারছে তখনই যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে চলেছে পাকিস্তান। আর পাক সেনাদের এই লম্পট সুলভ আচরণের খেসারত দিতে হচ্ছে উপত্যকার সাধারণ নাগরিকদের। আরানিয়া ও সাম্বা সেক্টরের পর এবার আরএসপুরা সেক্টরে গোলাগুলি বর্ষণ চালাচ্ছে পাক সেনা। বুধবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এই লাগাতার এনকাউন্টারে এখনও পর্যন্ত ৪ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার সকালেই কাঠুয়া জেলার হিরানগরের সীমান্তের কাছে সাধারণ নাগরিকদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় পাক সেনা। গুলি লেগে রাম পাল নামের এক উপত্যকার অধিবাসী আহত হন। চিকিৎসার জন্য জম্মু সরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হলে কিছুক্ষণ পরেই মৃত্যু হয় তাঁর।

সূত্রের খবর, বিএসএফের প্রায় ৪০টি পোস্টকে নিশানায় নিয়েছে পাক রেঞ্জার্সরা। রাতভর ওই পোস্টগুলিকে লক্ষ্য করেই গোলাগুলি ছুঁড়ছে তারা। পুলিশ জানিয়েছে হিরানগর, সাম্বা, রামগড়, আরানিয়া ও আরএসপুরার মতো সেক্টরগুলিকেই মূলত নিশানা বানাচ্ছে পাক সেনা। সুরক্ষার খাতিরে আন্তর্জাতিক সীমান্তের ভেতরে ৫ কিলোমিটার পর্যন্ত সকল স্কুল কলেজও বন্ধ রাখা হয়েছে। উল্লেখ্য, গতকালও একই ভাবে সাধারণ মানুষদের নিশানায় নিয়ে গুলি চালায় পাকিস্তান। গুলি বর্ষণের ফলে এক ৮ মাসের শিশু সহ ৬ জনের মৃত্যু হয়। আজও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে দেখা গেল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here