news national

Highlights

  • জাভেদ লিখেছেন, প্রশ্নটা তাহির কেন তা নিয়ে নয়। প্রশ্নটা তাহিরই কেন?
  • প্রশ্ন তুলেছেন, যারা পুলিশের সামনেই হিংসার হুমকি দিল তাদের নাম এফআইআরে নেই কেন?
  • পুলিশের ভূমিকা নিয়ে তির্যক মন্তব্য করেন প্রখ্যাত গীতিকার

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘কেন তাহির বলছি না। প্রশ্নটা, তাহির’ই কেন?’ দিল্লি সংঘর্ষ নিয়ে এমনই প্রশ্ন তুললেন সঙ্গীতজ্ঞ জাভেদ আখতার। উত্তপ্ত দিল্লি পরিস্থিতির জন্য যারা দায়ী, যারা পুলিশের সামনেই প্রকাশ্যে হিংসার হুমকি দিল, তাঁদের নাম কেন? ট্যুইট করে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন জাভেদ। কটাক্ষ করে লিখেছেন, দিল্লি পুলিশের এমনই ভূমিকা যে তাতে হাইকোর্ট পর্যন্ত সন্দিহান। নামের জন্যই দিল্লি কাণ্ডে অভিযোগের শিকার হতে হয়েছে আপ কাউন্সিলরকে, এমনই মনে করছেন প্রখ্যাত গীতিকার।

এই ট্যুইট করার আগেও তিনি একটি ট্যুইট করেন। তাতে লিখেছিলেন, কতজনের মৃত্যু হয়েছে, কতজন আহত, কত বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে, কত দোকান লুঠ করা হয়েছে, কত মানুষ ভীত সন্ত্রস্ত কিন্তু এই ঘটনায় পুলিশ মাত্র একজনের বাড়ি সিল করেছে। তিনি লিখেছিলেন, বাড়ির মালিকের ধরে খুঁজেই বাড়ি সিল করা হয়েছে। এর কারণ হিসেবে গীতিকার মনে করেছেন, ‘তাহির’ নামের জন্যই তাঁর ওপর দিল্লি পুলিশের এই পদক্ষেপ। এই নিয়ে দিল্লি পুলিশকে নিয়ে তির্যক মন্তব্যও করেছেন তিনি।

অনেকেই জাভেদের প্রথম ট্যুইটকে সমর্থন করেছেন। আবার আক্রমণ করতেও ছাড়েনি অনেকে। আক্রমণ করে বলা হয়েছে, কেন দোষীর সমর্থনে সওয়াল করছেন? তার জবাবেই দ্বিতীয় ট্যুইট করে আখতার লিখেছেন, প্রশ্নটা তাহির কেন তা নিয়ে নয়। প্রশ্নটা তাহিরই কেন?

প্রসঙ্গত, দিল্লি সংঘর্ষে নাম জড়িয়েছে আপ নেতা ও কাউন্সিলর তাহির হোসেনের। তাঁর মদতেই আইবি কর্মী খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ। গোয়েন্দা কর্মীর দেহ উদ্ধার হয়েছে নালা থেকে। মৃতের বাবার অভিযোগ, আপ নেতা তাহিরের লোকেরাই তাঁর ছেলেকে মারধর করে খুন করে। যদিও এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত কাউন্সিলর। তাঁর বাড়ি থেকে পেট্রোল বোমা ও প্ল্যাস্টিকের পাউচে অ্যাসিড উদ্ধার করা হয়েছে। দিল্লি সংঘর্ষের সময়, পুলিশ ও আধাসেনা বাহিনীর ওপর অ্যাসিড আক্রমণ হয়েছিল। তবে সেই অ্যাসিড তাহির বা তাঁর লোকেরাই ছুঁড়েছিল কী না তা জানা নেই। অভিযুক্তকে ইতিমধ্যেই আম আদমি পার্টি থেকে বহিস্কার করেছে কেজরিওয়াল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here