kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এক মুহূর্ত সময় নষ্ট করলেন না ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন, শোনার পরেই নিজেকে কোয়ারেন্টাইন করলেন ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী। নিজের বাড়িতেই সেল্ফ আইসোলেশনে চলে গিয়েছেন তিনি। ঝাড়খন্ড সরকারের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে এমনটাই জানানো হয়েছে।

সরকারের তরফে বলা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন নিজেকে কোয়ারেন্টাইন করেছেন। এখন মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে প্রবেশ একেবারেই নিষিদ্ধ। কিছুদিন আগে ঝাড়খণ্ডের অন্য এক মন্ত্রী মিথিলেশ ঠাকুরের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন হেমন্ত সোরেন। তিনি গতকাল ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই খবর পাওয়ার পরেই নিজেকে আইসোলেশনে পাঠিয়েছেন ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ভাইরাস পরীক্ষা করানোর জন্য স্যাম্পল পাঠিয়েছেন সোরেন। 

যত দিন যাচ্ছে ভারতের রাজনৈতিক মহলে প্রভাব বিস্তার করছে করোনাভাইরাস। ইতিমধ্যে তাঁবুর রাজনীতিবিদরা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য, দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী, বিজেপি নেত্রী তথা সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, তৃণমূল নেতা সুজিত বসু প্রমূখ। অন্যদিকে, তমোনাশ ঘোষের মতো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটেছে করোনাভাইরাসে। আবার গতকালই জানা গিয়েছে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের ভাইঝি ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। সেই ঘটনার পর নীতীশ কুমারও আইসোলেশনে গিয়েছেন। তাই পরিস্থিতি য বেশ উদ্বেগজনক তা বলাই বাহুল্য।

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে ঝাড়খন্ডে ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ৩০০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। যাদের মধ্যে ইতিমধ্যেই ২২ জনের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটেছে। 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here