মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে এলেন জিয়াগঞ্জ কাণ্ডে নিহত শিক্ষকের মা

0
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, জিয়াগঞ্জ: জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডে পুলিশি তদন্তে খুশি নন নিহত শিক্ষকের মা। সঠিক তদন্তে উঠে আসুক আসল কারণ।এই দাবি নিয়েই তিনি নবান্নে দেখা করতে এলেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে। ওই শিক্ষকের মা মায়ারাণি বলেন, সামান্য কয়েক হাজার টাকার জন্য ছেলে সহ পুরো পরিবারেরকে উৎপল কেন মারবে? এর পেছনে অন্য কোনও বড় রহস্য আছে। যা এখনও তদন্তে উঠে আসেনি। তাঁর দাবি, কোনও পুরনো শত্রুতার জেরেই বন্ধু প্রকাশ ও তাঁর পরিবারকে খুন করা হয়েছে।

দশমীর দিন দুপুর ১২ টা নাগাদ জিয়াগঞ্জের সাগরদিঘিতে শিক্ষক বন্ধু প্রকাশ পালের বাড়িতে ঢুকে শিক্ষক সহ তাঁর ৬ বছরের ছেলে ও সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে খুন করা হয়। এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় পেশায় রাজমিস্ত্রি উৎপল বেহরাকে। ধৃত জানায়, বন্ধু প্রকাশ শিক্ষকতার পাশাপাশি বিমা এজেন্ট ছিলেন। তাঁর কাছেই ২৪ হাজার টাকার পলিসি করেছিল উৎপল। আগের বার টাকা জমা দেওয়ার রসিদ চাইলে বন্ধু প্রকাশ জানান সেই কাগজ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এরপরে ওই শিক্ষক আদৌ টাকা জমা দেয়নি বলে সন্দেহ হয় উৎপলের। টাকা ফেরত চেয়ে বচসা হয় দুজনের মধ্যে। ধৃতের দাবি, তাকে গালাগাল করা হয়। এই  রোষেই সে খুন করে শিক্ষক সহ পরিবারকে।

সাগরদিঘি থানায় জেলা পুলিশ সুপার শ্রী মুকেশ কুমার ডেকে পাঠান নিহত শিক্ষকের মা মায়ারাণি দেবী ও স্ত্রী (বিঊটি) র বাবা সুখেনচন্দ্র মণ্ডল ও মা চন্দনা মণ্ডলকে। উপস্থিত ছিলেন পরিবারের অন্য সদস্যরাও। সেখানেই তাঁদের উৎপলের বয়ান শোনানো হয়। তাতেও বিশ্বাস হয়নি নিহত শিক্ষকের মায়ের। তিনি বলেন, ‘পুলিশ এখনও সঠিক কিনারা করতে পারেনি। মুখ্যমন্ত্রীর সাথে দেখা করে উপযুক্ত তদন্তের দাবি জানাব। এই ঘটনার পেছনে পুরনো শ্ত্রুতা রয়েছে। আরও অনেকে জড়িত। তাদের শাস্তি চাই।তদন্তে উঠে আসুক আসল সত্য।সেই আবেদন জানিয়েই মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আসা ‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here