ডেস্ক: ফের একবার শিরোনামে উঠে এলেন গুজরাতের দলিত নেতা ও বিধায়ক জিগনেশ মেওয়ানি। দলিত নেতাদের অধিকার রক্ষার জন্য বিক্ষোভ কর্মসূচীতে যোগ দিতে যাওয়ার সময় পুলিশের হাতে আটক হলেন জিগনেশ। আন্দোলনকারী ভানুভাই ভঙ্করের কালেক্টর অফিসের সামনে গায়ে আগুন দিয়ে মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে বনধ ডেকেছিলেন দলিত এই দলিত নেতা। কিন্তু সেখানে পৌঁছানোর আগেই তাঁকে আটক করে পুলিশ। এছাড়াও আটক করা হয়েছে দলিত নেতা নৌসাদ সোলাঙ্কিকে।

দলিত নেতা ভানুভাই ভঙ্করের গত বৃহস্পতিবার কালেক্টরেট অফিসের সামনে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। সেখান থেকে তাঁকে উদ্ধার করা হলেও শুক্রবারই অগ্নিদগ্ধ হয়ে গুরুতর জখম অবস্থায় মারা যান তিনি। ভাঙ্করের মৃত্যুর প্রতিবাদে রবিবার আমেদাবাদে বনধ ডেকেছেন জিগনেশ মেওয়ানি। সারাঙ্গপুরে আম্বেদকরের মূর্তির সামনে এদিন বিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু আইনশৃঙ্খলার অবনতির হওয়ার আশঙ্কায় তাঁকে আটক করে।

গুজরাত সরকারের বিরুদ্ধে দলিত শ্রমিকদের প্রতিশ্রুতিমতো জমি না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ক্ষতিপূরণ হিসাবে দলিতরা সরকারকে ২২ হাজার টাকা দিলেও, সরকার তাদের অনুষ্ঠানিকভাবে কোনও জমির মালিকানা তুলে দেয়নি বলে অভিযোগ। এই অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রীকেও চিঠি লিখেছিলেন ভানুভাই ভঙ্কর। চিঠিতেও নিজের গায়ে আগুন লাগানোর হুমকি দিয়েছিলেন তিনি। সেইমতো পাটনের জেলাশাসকের অফিসের সামনেই নিজের গায়ে আগুন লাগান ভানুভাই। এই ঘটনার প্রতিবাদেই বিক্ষোভ কর্মসূচী ডাকেন জিগনেশ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here