FotoJet1234

ডেস্ক: ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়ার’ অন্যতম জনপ্রিয় সিনেমা। কিন্তু এই কথার একটি সঠিক ব্যাখ্যা আছে। সিনেমার ক্ষেত্রে ব্যবহার হয়েছিল স্থান-কাল পাত্র হিসাবে। কিন্তু কাউকে যদি এই নামে ডাকা হয় তাহলে সেটি হয় অপমানজনক। আর এই ঘটনাটি ঘটেছিল জন আব্রাহামের সঙ্গে। তিনি নিজেই জানিয়েছেন এই কথাটি। তাঁর বক্তব্য, ”আমার মনে আছে কেউ একজন বিমানবন্দরে আমার পাসপোর্ট দেখে বলেছিল স্লামডগ মিলিয়নিয়ার। তখন আমি তাঁকে বলেছিলাম। মিলিয়নিয়ার নয় যে কোনও কারণে হোক আমি তোমাকে এই মুহূর্তে কিনে নিতে পারি আর আমার দেশ কয়েক সেকেন্ডে তোমাকে কিনে নিতে পারে। আমরা রাজ করছি, ভারত রাজ করছে গোটা বিশ্বে।”

বিদেশে যারা বসবাস করেন তারা ভারতীয়দের অপমান করার জন্য এই কথাটি বলে থাকেন। চলতি সপ্তাহতেই জন অভনীত গোয়েন্দা মূলক সিনেমা ‘রোমিও আকবর ওয়াল্টার’ মুক্তি পাবে বলিউডে। কিন্তু ইদানিং জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ উঠছে তিনি নাকি জাতীয়তাবাদী মূলক সিনেমা বেশি করছেন। এই প্রশ্নের উত্তরে জন জানান, ”এটা আমি ইচ্ছা করে করছি না। প্রযোজকদের মনে হয়েছে তাই করতে হচ্ছে। তবে আমার সিনেমাতে যদি জাতীয়তাবাদী ঘটনা থাকে তাহলে খুব খুশি হব।” আমেরিকা, ভারতের তুলনায় বেশি সিনেমা বানায় সেনাবাহিনীদের নিয়ে।

 

কিন্তু কেন এই বিষয় নিয়ে ভারত পিছিয়ে আছে? বলিউডের হাঙ্ক জানান, ”আমার মনে হয় আমেরিকা নিজেদের জয়কে সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে চায়। আমরা আমেরিকার সিনেমা দেখে খুবই খুশি হই। যেন মনে হয় সেনাবাহিনীতে যোগদান করি। যদি আমেরিকা তাঁদের সেনা কিংবা সরকারের সাফল্য নিয়ে সিনেমা বানাতে পারে আমরা কেন পারব না? আমাদের দেশের মানুষেরা কিংবা যুবসমাজ চায় ‘র’ কিংবা ভারতীয় সেনাদের সিনেমা বানানো হোক। এতে তারা বেশি করে আত্মবিশ্বাস পায়।” আগামী ৫ এপ্রিল বড়পর্দায় মুক্তি পাবে ‘রোমিও আকবর ওয়াল্টার’। এই সিনেমাতে জন ছাড়াওন অভিনয় করতে দেখা যাবে জ্যাকি শ্রফ, মৌনি রায়কে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here