Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি বিচ্ছিন্নতাবাদীর অভিযোগ উঠেছিল আগেই। এবার গায়ে লাগল জমি মাফিয়ার কালি! কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জন বার্লার বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ দায়ের করলেন তৃণমূল নেতৃত্ব। বার্লার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে জমি দখলের অভিযোগ তুলে জলপাইগুড়ি জেলাশাসকের দ্বারস্থ হলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি কৃষ্ণকুমার কল্যাণী। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছে প্রশাসন।

ads

জলপাইগুড়ির বানারহাটের চামুর্চি এলাকায় অবৈধভাবে মার্কেট কমপ্লেক্স নির্মাণ করছেন আলিপুরদুয়ারের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বিজেপির জন বার্লা। অভিযোগ, জমিটি সরকারি। সেটি দখল করেই কমপ্লেক্স গড়ছেন বার্লা। এই অভিযোগ তুলে জেলাশাসকের দ্বারস্থ হয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

তৃণমূলের জেলা সভাপতি কৃষ্ণকুমার কল্যাণী বলেন, আমি বানারহাট ব্লকের তৃণমূল নেতৃত্বের কাছ থেকে বেশ কিছুদিন ধরে অভিযোগ পাচ্ছিলাম যে সেখানে একটি সরকারি জমি দখল করে বিশাল মার্কেট কমপ্লেক্স তৈরি করা হচ্ছে। যার কাজ অনেক দূর এগিয়েও গিয়েছে। তাই আমরা জলপাইগুড়ি জেলাশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলাম। বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন জেলাশাসক। তাঁর রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ করব আমরা।

বার্লার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বিজেপির জেলা সভাপতি বাপী গোস্বামী। তিনি বলেন, বার্লা একজন চা শ্রমিক। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁকে মন্ত্রী করেছেন। তাই প্রতিহিংসার রাজনীতি করতে ময়দানে নেমেছে তৃণমূল। তাঁর প্রশ্ন, এই বাড়িটি তো একদিনে তৈরি হয়নি। এতদিন প্রশাসন কী করছিল?

পৃথক উত্তরবঙ্গ রাজ্য গঠনের দাবিতে সোচ্চার হয়েছিলেন বার্লা। তা নিয়ে আন্দোলনে নামে তৃণমূল। বার্লার দাবিতে সায় দেননি বিজেপি নেতৃত্ব। তবে এবার জমি মাফিয়ার কালি গায়ে লাগায় কীভাবে তা সামাল দেয় গেরুয়া শিবির, এখন তাই দেখার।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here