নিজস্ব প্রতিবেদক, জয়নগর: তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে আবারও অগ্নিগর্ভ শিক্ষাঙ্গন। শুক্রবার দক্ষিন ২৪ পরগনার জয়নগরের দক্ষিণ বারাসাত ধ্রুবচাঁদ হালদার কলেজের ইউনিয়ন রুমের দখলদারি নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ বাঁধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জেলা পুলিশকে র‍্যাফ এবং অতিরিক্ত বাহিনী নামিয়ে দুই পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করতে হয়। ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ঘটনার পর থেকে কলেজে বসেছে পুলিশ পিকেটিং।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর থানার দক্ষিণ বারাসাত এর ধ্রুবচাঁদ হালদার কলেজের তৃনমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠী ইউনিয়ন রুম এর দখল নিয়ে সংঘর্ষ জড়িয়ে পড়ে। দুই পক্ষের সংঘর্ষে এবং মুহুমুহু বোমা বর্ষণে কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জয়নগর থানার পুলিশ এবং জেলা পুলিশ এর বিশাল বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠি চার্জ করে দুই পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে। এই ঘটনায় উদ্বিগ্ন কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকা থেকে পড়ুয়ারা। ঘটনার পর থেকে কলেজ চত্বরে পুলিশ পিকেটিং বসানো হয়েছে।

ঘটনা প্রসঙ্গে জানা গিয়েছে, এই গোষ্ঠী কোন্দলের মূলে স্থানীয় দুই তৃণমূল নেতার নাম উঠে এসেছে। একদিকে গৌর সরকার অন্য দিকে বিশ্বনাথ দাস যুযুধান দুই গোষ্ঠীর মধ্যে কলেজের ইউনিয়ন এর দখল কার হাতে থাকবে না তা নিয়ে ব্যাপক গন্ডগোল সৃষ্টি হয়, চলে বোমাবাজি। যদিও এই ঘটনা নিয়ে দুই পক্ষের কেউই মিডিয়ার কাছে মুখ খুলতে চাননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here