kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাবরা: করোনা আটকাতে ফের লকডাউন করা হবে হাবরায়। আজ হাবরায় এক দলীয় সভায় যোগ দিতে এসে এই কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তার কথায়, হাবরায় এখনও পর্যন্ত ১৯৪ জন আক্রান্ত। ক্রমশ সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। তা আটকাতেই আবার লকডাউন দরকার। অচিরেই পুর প্রশাসকমণ্ডলী ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বসে লকডাউনের দিন স্থির করবে। একই সঙ্গে হাবরার বাণীপুরে ৫০ বেডের সেফ হোম চালু হবে। সেটিকে ২০০ বেড পর্যন্ত বাড়ানো হবে বলে তিনি জানান।

একই সঙ্গে দেশ জুড়ে করোনার প্রকোপের মাঝে বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ হাসপাতালের থেকে মন্দির তৈরি করাকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করাকে কটাক্ষ করেন তৃনমুলের জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তার দাবি, দিলীপ ঘোষ মস্তানের ভাষায় কথা বলছে। মানুষ তার জবাব দেবে। ওঁকে বিজেপি কর্মীরা দিল্লির হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করাক। আর ব্যারাকপুরে অর্জুনকে জিতিয়ে মানুষ কী ভুল করছে তা তারা বুঝতে পারছে। আগামী নির্বাচনে মানুষ আর এই ভুল করবে না বলে মত তাঁর।

এদিন দলীয় বৈঠকে তিনি বলেন, এলাকার প্রাক্তন কাউন্সিলররা নিজের নিজের এলাকায় দায়িত্ব নিয়ে কাজ করবেন। আর হাবরায় গঙ্গার জল সরবরাহের পাইপ লাইনের বকেয়া কাজ আগানী ১ মাসের মধ্যেই শুরু হবে। আর তারপরেই শহরের ভাঙাচোরা রাস্তা সরাইয়ের কাজ শুরু হবে বলে ঘোষণা করেন হাবরার বিধায়ক। তিনি জানান, রাজ্য খাদ্য সুরক্ষা যোজনা ২-এর অধীন রেশন গ্রাহকরা এবার থেকে পুরনো স্কেলেই অর্থাৎ কার্ড পিছু ১ কেজি চাল পাবেন। শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমতো এই রেশন গ্রাহকদের দিতে হবে না কোনও অর্থ। খাদ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, কেন্দ্র রাজ্যের এই খাদ্য যোজনায় কোনও সাহায্যই করছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here