news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জল্পনা শেষ। অবশেষে কংগ্রেস ত্যাগ করলেন জ্যোতিরাদিত্যা সিন্ধিয়া। সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর কাছে ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে বাবার জন্মদিনের দিনেই দল ছাড়লেন সিন্ধিয়া। এদিন তিনি ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে জানান, কংগ্রেসের থেকে মানুষের হয়ে কাজ করতে তিনি পারছেন না। সেই কারণেই এই পদত্যাগ। এবার যে তিনি পাকাপাকিভাবে বিজেপিতেই যাচ্ছেন তাতে আর কোনও সন্দেহ থাকছে না। সব ঠিক থাকলে আজই বিজেপিতে যোগ দেবেন জ্যোতি।

জানা গিয়েছে, গতকাল রাতেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। অনুমান করা হচ্ছে দল ছাড়ার ভাবনা তিনি তখনই নিয়ে নিয়েছিলেন। সেই প্রেক্ষিতেই আজ কংগ্রেস ছাড়লেন সিন্ধিয়া। তবে দল ছাড়ার আগে তিনি মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকারকেই নড়বড়ে করে দিয়ে গেলেন। ১৭ জন বিধায়কদের নিয়ে তিনি বেঙ্গালুরুতে হোটেলে গিয়েছিলেন। এখন জল্পনা তাঁর সঙ্গেই এই বিধায়করাও বিজেপিতে যোগ দেবেন। জানা গিয়েছে, আজ সন্ধেতেই জ্যোতিরাদিত্যকে রাজ্যসভার প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করতে পারে বিজেপি। তিনি ভোপাল থেকে মনোনয়ন জমা দেবেন বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে, ইস্তফা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই দলবিরোধী কার্যকলাপের জন্য জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে বহিষ্কার করেছে কংগ্রেস।

এই মুহূর্তে যে অবস্থায় কংগ্রেস সরকার মধ্যপ্রদেশে দাঁড়িয়ে রয়েছে তাতে মনে করা হচ্ছে কমল নাথ সব মন্ত্রিসভার সদস্যদের থেকে ইস্তফা চেয়ে নেবেন। তারপর তিনি ভোটাভুটিতে যাবেন। সেই ক্ষেত্রে রাজভবন কী ভূমিকা পালন করেন তার দিকে নজর থাকবে সকলের। এতএব এককথায়, কমল নাথ নিজেই হয়তো রাজ্যের সরকার ভেঙে দিতে পারেন। এদিকে আবার ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমেছেন কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং। কংগ্রেস নেতার কথায়, সিন্ধিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না, কারণ তাঁর সোয়াইন ফ্লু হয়েছে। তবে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের পূর্ণ চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here