kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি : মুকুল শোকে কাতর কৈলাশ বিজয়বর্গীয়! শোক তাঁর এতটাই তীব্র যে বাংলা থেকে পাততাড়ি গুটিয়ে যথা শীঘ্র সম্ভব তিনি চলে যেতে চাইছেন। বিজেপিরই একটি সূত্রে এ খবর মিলেছে। এঁদের মতে, মুকুল রায় বিজেপি ছাড়ার পরেই কার্যত হাত গুটিয়ে নিয়েছেন কৈলাশ।

ads

২০১৭ সালের পুজোর পরে পরে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন মুকুল রায়। তারও মাস দুয়েক আগে তৃণমূলের পাট চুকিয়ে ফেলেছিলেন তিনি। কৈলাশ তখন বাংলায় বিজেপির পর্যবেক্ষক। মুকুলের মতো দুঁদে রাজনীতিবিদের সঙ্গে কৈলাশের রসায়ন জমে যায়। মুকুল শপথ নিয়েছিলেন, বাংলায় তৃণমূলকে শেষ করার। আর কৈলাশ ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন বাংলাকে তৃণমূল মুক্ত করবেন বলে। প্রত্যাশিতভাবেই দুজনের জুটি নজরকাড়ে রাজনৈতিক মহলের।

একুশের নির্বাচনে মুখ থুবড়ে পড়ে বিজেপি। ২৯২টি আসনের মধ্যে মাত্র ৭৭টি নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় বিজেপিকে। দলের এহেন বিপর্যয় সামলে ওঠার আগেই ফের ধাক্কা আসে। সেটা হল, একদিন আচমকাই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে গিয়ে যোগ দেন মুকুল। তিনি একা নন, সঙ্গে নিয়ে যান তাঁর ছেলে শুভ্রাংশুকে। শুভ্রাংশু দল ছাড়ায় সমস্যা হয়নি। কৈলাশ হতাশ মুকুল বিজেপি ছাড়ায়। বিজেপি সূত্রের খবর, মুকুল দল ছাড়ার পরেই কার্যত ভেঙে পড়েন কৈলাশ। সেই কারণেই আর বাংলা নিয়ে তিনি বিশেষ মাথা ঘামাচ্ছেন না। দিন কয়েক আগে রাজ্যে যে কার্যকারিণী সভা ডাকা হয়েছিল, সেখানেও একেবারে শেষ দিকে কিছুক্ষণের জন্য গিয়ে সভা থেকে বেরিয়ে যান মুকুল। বিজেপির একটি সূত্রের খবর, কৈশাল চাইছেন দ্রুত তাঁকে বাংলার পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here