এই মুহূর্তে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হোক! যাদবপুরকে ‘হাতিয়ার’ করলেন কৈলাস

0
670
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গতকাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে চরম হেনস্থার শিকার হয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। পরিস্থিতি বেসামাল হওয়ার পরও ক্যাম্পাসে পুলিশ ঢুকতে দেননি উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। এই নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে কিছুটা ‘তর্ক’ও হয়। অবশেষে রাজ্যপাল খোদ বাবুলকে ‘উদ্ধার’ করতে সেখানে পৌঁছন। এই প্রেক্ষিতেই রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি করলেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গী।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়ে তিনি বলেন, এত বড় হেনস্থার ঘটনা ঘটেছে, কিন্তু কোনও পুলিশ নেই। ছিল না নিরাপত্তার কোনও বেষ্ঠনীও। হেনস্থার শিকার হওয়া কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করতে যেতে হচ্ছে স্বয়ং রাজ্যপালকে। এই পরিস্থিতিই প্রমাণ করে পশ্চিমবঙ্গে আইনশৃঙ্খলার নামমাত্র নেই। এই মুহূর্তে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হোক! কারণ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা সামলাতে ব্যর্থ। এমন বলে তিনি জানিয়েছেন, ব্যক্তিগতভাবে তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এই বিষয় কথা বলবেন। গতকালের ঘটনার পূর্ণাঙ্গ বিবরণ দেবেন।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে ‘উদ্ধারে’ বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বাবুল সুপ্রিয়র হেনস্থার খবর পেতেই উপাচার্যকে ফোন করেন ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে এভাবে আটকে রাখা যায় না, প্রয়োজনে উপাচার্যকে পুলিশি সাহায্য নেওয়ার কথা বলেন তিনি। কিন্তু রাজ্যপালের পুলিসি সাহায্যের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন উপাচার্য। পরবর্তী সময়ে নিজে গিয়ে বাবুল সুপ্রিয়কে গাড়িতে করে নিয়ে আসেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here