FotoJet-78

নিজস্ব প্রতিবেদক, ইসলামপুর: মেরুকরণের আঁচ ভালভাবেই টের পাচ্ছে বাংলা। শনিবার থেকে রামনবমীর অস্ত্র মিছিল কেন্দ্র করে গোটা পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক উত্তাপ বেশ খানিকটা বেড়েছে। একই সঙ্গে বাংলা থেকে আরও বেশি আসন দখলের বিষয়েও বেশ আত্মবিশ্বাসী দেখাচ্ছে বিজেপিকে। বিশেষ করে প্রথম দফার ভোটগ্রহণের পর যেন আত্মবিশ্বাসে ফুটছে বিজেপি। উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে বিজেপি ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সম্মিলিত রামনবমীর মিছিলে সেই ইঙ্গিতই পাওয়া গেল।

এদিন ইসলামপুরে রামনবমীর মিছিলে পা মেলান বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরীও। তবে এদিনের সবথেকে তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, এবছরের রামনবমীতে ইসলামপুরের হোডিং বদলে করা হল ‘ঈশ্বরপুর’! জায়গায় জায়গায় মিছিল ও হোর্ডিং-এ ইসলামপুর নাম বদলে ‘ঈশ্বরপুর’ নামই ব্যবহার করা হয়। মিছিলে উপস্থিত হয়ে কৈলাস বিজয়বর্গীয় নাম বদলের প্রসঙ্গে বলেন, ‘জায়গাটির নাম ইসলামপুর। কিন্তু মিছিল বেরোচ্ছে রাম উৎসবের। শ্লোগান উঠছে মোদী মোদী। নাম বদলের প্রসঙ্গে বলব, এটা তো দেশের গণতন্ত্র। আর গণতন্ত্রে যদি মানুষের ইচ্ছে হয় যে এর নাম বদল হোক, তাহলে অবশ্যই নাম পরিবর্তন করা হবে।’

তবে এখানেই থেমে থাকেননি বিজয়বর্গীয়। সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একধাক্কায় পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির আসনের টার্গেট অনেকটাই বাড়িয়ে দেন তিনি। অমিত শাহরা যেখানে ২৩টি আসনের টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন, সেখানে বিজয়বর্গীয়কে বলতে শোনা যায়, ৩০টি আসনের টার্গেট ঠিক করেছেন তাঁরা। একই সঙ্গে রাম নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগও পাল্টা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘাড়ে। বলেন, আমরা রামের আদর্শ মেনেই রাজনীতি করছি। কিন্তু মমতার এখন রামের কথা মনে পড়েছে। উনি স্বপ্নেও এখন বিজেপিকে দেখছেন।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here