news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক:  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে রবিবার দেশের প্রায় প্রত্যেকটি মানুষ প্রদীপ জ্বালিয়ে করোনা মোকাবিলায় একতা দেখিয়েছেন। মোদী বলে দিয়েছিলেন একতার শক্তিই হারাতে পারে করোনাকে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর এহেন পদক্ষেপে মোটেই খুশি নন অভিনেতা – রাজনীতিবিদ কমল হাসান। মোদীর এই পদক্ষেপ নিয়ে এদিন একটি খোলা চিঠি লিখেছেন অভিনেতা। সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন, ‘আমি ভীষণ ক্ষুব্ধ, তাও আপনার পাশেই আছি।’ এরই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর এই ধরনের ‘মানসিক ভাবে চাঙ্গা’ করার টেকনিককেও কটাক্ষ করেছেন কমল।

তিনি তাঁর খোলা চিঠিতে লিখেছেন, ‘আমরা আপনার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই কিন্তু সেই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাতে গিয়ে আমরা দিশেহারা হয়ে যাচ্ছি।’ রাজনীতিবিদ কমলের আশঙ্কা, এই লকডাউন ২০১৬ নোট বন্দির মতোই ভুল সিদ্ধান্ত হতে পারে, অন্তত পক্ষে গরীবদের ক্ষতি হবে বলেই ধারণা কমলের। তিনি বলেন, ‘আমার ভয়টা হল এই লকডাউনের সিদ্ধান্তটি নোট বন্দির মত ব্যর্থ না হয়ে যায়। নোট বন্দির সময় যেমন গরীব ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের পুঁজি তে টান পড়েছিল। এই লকডাউনের ফলে পুঁজির পাশাপাশি জীবিকার ক্ষেত্রেও বিঘ্ন ঘটবে।’ এমনটাই আশঙ্কা ‘মক্কাল নিধি মাইয়াম’ রাজনৈতিক দলের প্রধানের।

তিনি আরও বলেন, ‘একদিকে যেমন আপনি বলছেন প্রদীপে তেল দিয়ে আগুন জ্বালান। ভারতবর্ষে এই মুহূর্ত্বে এমন অনেক পরিবার আছে যাদের হয়ত ওইটুকু তেলও নেই যার সাহায্যে তারা আগুন জ্বালিয়ে রুটি বানাতে পারে। এই ধরনের মানসিক চাঙ্গা করার মত চিন্তাভাবনা প্রথম সারির দেশগুলির পক্ষে ভালো কিন্তু ভারতবর্ষে এগুলি চলে না। আপনি ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে প্রদীপ জ্বালাতে বলেছেন। আমি আপনাকে মনে করিয়ে দিতে চাই দেশে এমন অনেক পরিবার বসবাস করে যাদের ব্যালকনি তো দূর, মাথার উপর ছাদটাও নেই। আপনি তাঁদের কথা না ভেবেই শুধুমাত্র বড়লোকদের জন্য এইসব কার্যকলাপ করছেন। অথচ ভারতের অর্থনীতিতে সবথেকে বেশি অবদান রয়েছে এই গরীব ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষদেরই।’

করোনার সঙ্গে লড়তে কোনও রকম পরিকল্পনা ছাড়াই এই লকডাউনের সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। তিনি চিঠিতে বলেন, ‘দুঃখিত হলেও কথাটি আমাকে বলতেই হচ্ছে, আপনার এই সিদ্ধান্তটি সম্পূর্ণ রূপে ব্যর্থ। আমি জানি হয়ত এই কথাগুলি বলার জন্য অনেকে আমাকে দেশদ্রোহী বলে সম্বোধন করবে।’ কমল দুপাতা চিঠির শেষে লিখেছেন, ‘আমি ভীষণ ক্ষুব্ধ, তাও আপনার পাশেই আছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here