sports news

Highlights

  •  সম্প্রতি কর্ণাটকের কন্নড় জেলার শ্রীনিবাস গৌড়াকে ঘিরেই সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়
  • কাদাজলে ভরা পথ দৌড়ে পেরোতে তিনি মাত্র ১৩.৪২ সেকেন্ডে দৌড়েছিলেন বলে দাবি
  • শ্রীনিবাস গৌড়ার রেকর্ড ভেঙে দেন নিশান্ত শেট্টী

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কয়েকদিন আগেই একেবারে ‘বিদ্যুৎ গতিতে’ কর্ণাটকের বিখ্যাত কাম্বালা রেসে দৌড়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন শ্রীনিবাস গৌড়া। উসেইন বোল্টের রেকর্ড ‘ভেঙে’ মাত্র ৯.৫৫ সেকেন্ডে ১০০ মিটার দৌড়েছিলেন শ্রীনিবাস। আর এবার ‘ভারতের উইসেন বোল্ট’ শ্রীনিবাসের রেকর্ড ভেঙে দিলেন আরেক কাম্বালা দৌড়বিদ নিশান্ত শেট্টী। মাত্র ১৩.৬৮ সেকেন্ডে ১৪৩ মিটার দৌড়লেন তিনি। অর্থাৎ ১০০ মিটার দৌড়তে তাঁর সময় লাগল মাত্র ৯.৫১ সেকেন্ড। আর এর পরেই ফের একবার শোরগোল পরে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

রবিবার ভেনুরে সূর্য-চন্দ্র যদুকাড়ে কাম্বালা দৌড়ের আসর বসেছিল। সেখানেই বাজাগোলি যোগীবেট্টুর বাসিন্দা নিশান্ত দুরন্ত এই রেকর্ড গড়েন।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে দক্ষিণ কন্নড় জেলার মুদাবিডরিতে কাম্বালা দৌড়ের আসর বসেছিল। সেখানেই দুরন্ত গতিতে দৌড়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন শ্রীনিবাস গৌড়া। কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী তারপর তাঁকে ৩ লক্ষ টাকা দিয়ে সংবর্ধিত করেন। কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু খোদ তাঁকে সাইয়ের ট্রায়ালে আসার প্রস্তাব দেন। কিন্তু সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে শ্রীনিবাস জানান, তিনি অ্যাথলেটিক্সের ট্রায়ালে যাবেন না।

সোমবার এই ট্রায়ালে নামার কথা ছিল শ্রীনিবাসের। কিন্তু রবিবারই সেই ট্রায়ালে যাবেন না বলে তিনি জানান, ‘কাম্বালা দৌড়ে পায়ের গোড়ালি খুব বড় ভূমিকা পালন করে। অন্যদিকে ট্র্যাক রেসের ক্ষেত্রে পায়ের টোয়ের ভূমিকা অনেক বেশি। আর কাদার মধ্যে অত জোরে দৌড়তে মহিষদের ভূমিকাও অনস্বীকার্য।’

২৮ বছরের যুবক শ্রীনিবাস পোষা দুই মহিষের সঙ্গে দৌড়েছেন ১৪২.৫ মিটার পথ। কাদাজলে ভরা ওই পথ দৌড়ে পেরোতে তিনি মাত্র ১৩.৪২ সেকেন্ডে দৌড়েছিলেন বলে দাবি করা হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক প্রচার শুরু হওয়ার পরই এই অসামান্য কীর্তি চোখে পড়ে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুর। তারপরেই তিনি জানান, শ্রীনিবাস গৌড়াকে আমন্ত্রণ জানানো হবে ‘স্পোর্টস অথোরিটি অব ইন্ডিয়া (সাই)’-র ট্রায়ালের জন্য।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here