news national

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভারতে করোনাভাইরাসের ত্রাস ছড়ানোর জন্য এই মুহূর্তে সব আঙুল উঠছে নিজামুদ্দিনের দিকে। কিন্তু তারও আগে দেশে ভাইরাসের ত্রাস বাড়িয়ে দিয়েছিলেন বলিউডের গায়িকা কনিকা কাপুর। বিদেশ থেকে ফিরে কোয়ারেন্টিনে না গিয়ে নিজের বাড়িতে পার্টি করেন। এই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন তাবড় রাজনৈতিক ব্যক্তি থেকে শুরু করে অন্যান্য তারকারা। তিনি ভাইরাস পজেটিভ আসায় দেশে নতুন করে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাস। অবশেষে সেই কনিকা কাপুর নেগেটিভ হলেন। হাসপাতাল থেকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

টানা পঞ্চমবার করোনাভাইরাস পজেটিভ হয়েছিলেন এই গায়িকা। বারবার পজেটিভ হওয়ায় রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে পড়ছিলেন তিনি। প্রার্থনা করেছিলেন যাতে পরবর্তী টেস্ট নেগেটিভ আসে। অবশেষে হলও তাই। ষষ্ঠ ভাইরাস টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট এল কনিকার। সূত্রের খবর সেই রিপোর্ট আসার পরেই এদিন লখনউ-র হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। তবে জানা গিয়েছে বাড়ি ফেরানোর আগে কনিকার পরপর দুবার টেস্ট করা হয়। দুবারই নেগেটিভ আসে।

গত মাসেই লন্ডন থেকে ফিরে এয়ারপোর্টে নিজের শারীরিক অসুস্থতার কথা লুকিয়ে ছিলেন কনিকা কাপুর। তারপর বাড়ি ফিরে একটা নয় প্রায় তিনটে পার্টিতে অংশগ্রহণ করেন তিনি। তার করোনা ভাইরাস পজেটিভ খবর আসার পরেই হু হু করে বাড়তে থাকে আতঙ্ক, একই সঙ্গে পুলিশের তরফে তিনটি মামলা দায়ের করা হয় তাঁর বিরুদ্ধে। কনিকার পার্টিতে হাজির থাকা উত্তরপ্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে রাজস্থানের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে এবং তার ছেলে দুশ্মন্ত সকলেই কোয়ারান্টিনে চলে যান। যদিও নিজের অসুস্থতার কথা লুকানোর বিষয়টি সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন গায়িকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here