ডেস্ক: কোথায় আছেন কপিল শর্মা? আপাতত এটিই এখন টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির হট্ টপিক। ২০১৮-র ২৫শে এপ্রিল থেকে সোনি এন্টারটেনমেন্ট চ্যানেলে শুরু হয় কপিল শর্মার নতুন শো ‘ফ্যামিলি টাইম উইথ কপিল’। অনুষ্ঠানটির প্রযোজকও ছিলেন কপিল নিজেই। কিন্তু তাঁর শেষ দুটি শো ‘কমেডি নাইটস্ উইথ কপিল’ এবং ‘দ্য কপিল শর্মা শো’ -এর মতন এই অনুষ্ঠানটির সাফল্য নিয়ে খুব একটা আশাবাদী ছিলেন না চ্যানেল কতৃপক্ষ। অনেকেরই মতামত এই শোতে তেমন নতুনত্ব কিছুই নেই। তাঁর নতুন ছবি ‘ফিরাঙ্গী’-ও দশর্কের মনে বিশেষ দাগ ফেলতে পারেনি। সম্প্রতি ট্যুইটারে এক সাংবাদিকের সঙ্গে কপিল শর্মার দুর্ব্যবহারকে কেন্দ্র করে শুরু হয় বিতর্ক। সাংবাদিকের সঙ্গে সলমন খানের কৃষ্ণসার হরিণ শিকার বিষয়ক কেসটি নিয়ে তাঁর কথোপকথন এমনই পর্যায় পৌঁছোয় যে পরস্পর পরস্পরের বিরুদ্ধে পুলিশ কেস করারও হুমকি দেন। কপিল শর্মার সাথে তাঁর প্রাক্তন ম্যানেজার নীতি সিমোস্ এবং প্রীতি সিমোসের সম্পর্কেও ফাটল ধরেছে। তারা কপিল শর্মার সঙ্গে শুধু কাজ করতেই নারাজ তাই নয়, তারা তাঁকে অনুরোধ জানিয়েছেন, মত্ত অবস্থায় তিনি যেন তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ পর্যন্ত না করেন। কপিলের প্রাক্তন প্রেমিকা নীতি ট্যুইটারে তাঁর প্রতি একটি খোলা চিঠিতে লিখেছেন যে কপিল ডিপ্রেশনে রয়েছেন, ওনার মদ্যপান থেকে নিজেকে দূরে রাখা প্রয়োজন এবং ক্ষতিকর মানুষদের থেকেও। কপিলের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন ভারতি সিং, গৌরী সিন্ডে, কৃষ্ণা অভিষেক প্রমুখরা। কপিল শর্মা বিভিন্ন নেতিবাচক কারণে খবরের শিরোণামে এসেছেন, কখনো বন্ধু ও সহ-অভিনেতা সুনীল গ্রোভারের সঙ্গে অশান্তি নিয়ে কখনোবা মদ্যপান করে বেসামাল ব্যবহারের জন্য। তিনি কাজের বিষয়েও বেশ বেপরোয়া এমন অভিযোগ আছে তাঁর বিরুদ্ধে। নতুন শোয়ের দু-সপ্তাহের মধ্যে তিনি ইতিমধ্যেই দু-দিন কাজ করেননি। নিজের ইচ্ছে অনুসারে এবং তারকারের সময় অনুযায়ী কাজ করেন তিনি। তবে তিনটি এপিসোড শ্যুটের পর আর শ্যুটিং-এ আসেননি কপিল। তাঁকে কোনোভাবে যোগাযোগ করতে না পেরে শোয়ের নির্দিষ্ট সময়ে পুরোনো অনুষ্ঠান চালাতে বাধ্য হচ্ছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। ফলে বেশ ক্ষতির মুখোমুখি চ্যানেল। যদিও এইপ্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করতে চায়নি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here