ডেস্ক: পুলওয়ামা জঙ্গি হামলার তদন্ত করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এলেও তদন্তকারীদের হাতে। মাসুদ আজহারের ভাগ্নের মৃত্যুর বদলা নিতেই নাকি জওয়ানদের উপর এই হামলা। আর এই হামলার নেপথ্যে রয়েছে জইশ-ই-মহম্মদ ক্যামান্ডার আবদুল রাশিদ গাজি। আত্মঘাতী হামলার পর তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে অন্য কোথায় নয়। নেপথ্যে থাকা এই জঙ্গি নাকি এখনও রয়েছে ভারতেই। তদন্তকারীদের অনুমান, ত্রালে লুকিয়ে রয়েছে রাশিদ গাজি। অর্থাৎ, পুলওয়ামাতেই নাকি এখনও লুকিয়ে রয়েছে সে।

জঙ্গি হামলার পর একের পর তথ্য উঠে আসছে তদন্তকারী অফিসারদের হাতে। সংবাদ শিরোনামেও জম্মু-কাশ্মীর তথা পুলওয়ামা। এই অবস্থায় জইশ কম্যান্ডারের ভারতে লুকিয়ে থাকার ঘটনা যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, মাসুদ আজহার নাকি জঙ্গিদের বলেছিল, ‘ভারতকে যেন চোখের জল ফেলতে হয়’। মাসুদ আজহারের ভাগ্নের মৃত্যুর বদলা নিতে নাকি এর আগে সোপিয়ানে তিনবার হামলা চালানো হয়েছিল বলে তদন্তকারী অফিসারদের অনুমান। যার চরম রূপ পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা।

উল্লেখ্য, শ্রীনগর-জম্মু জাতীয় সড়ক দিয়ে সিআরপিএফ-এর একটি কনভয় যাচ্ছিল। কনভয়ে ৭০টি ভ্যান ছিল। সেই সময় ৩৫০ কেজি বিস্ফোরক ভর্তি একটি স্করপিও গাড়ি নিয়ে এক জঙ্গি কনভয়ের ভ্যানে ধাক্কা মারে। তারপরই বিস্ফোরণ হয়। সেনার গাড়িতে ধাক্কা মারার পর গুলিবৃষ্টি শুরু হয় জওয়ানদের লক্ষ্য করে। প্রথমে বিস্ফোরণ ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় জওয়ানদের দেহ, পরে তাদের লক্ষ্য করে রীতিমতো গুলিবৃষ্টি চালানো হয়। সেই হামলাতেই মৃত্যু ঘটে ৪৫ জন সিআরপিএফ জওয়ানের। পুলওয়ামার এই জঙ্গি হামলার ঘটনা উরির থেকে তো বটেই, উপত্যকার সবচেয়ে বড় জঙ্গি হামলা বলে মানা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here