কাটমানির অভিযোগ অনুব্রতর বিরুদ্ধে, টাকা ফেরত চাইল খুদে উপভোক্তারা

0
anubrata

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এখনও পর্যন্ত কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে অনেক তৃণমূল নেতাকেই বিক্ষোভের মুখোমুখি হতে হয়েছে৷ কিন্তু কোনও কিছুই তাঁকে বাগে আনতে পারেনি৷ সে নির্বাচন কমিশনের শোকজ হোক বা বিরোধীদের আক্রমণ, তিনি বরাবরই স্বমহিমায় উজ্জ্বল৷ তাই তো মুখফুটে কিছু মন্তব্য করলেই খবরের প্রথম সারিতে উঠে আসে তার নাম৷ কাটমানি ইস্যুতে রাজ্য তোলপাড় হয়েছে ঠিকই, তবে অনুব্রত মণ্ডল কিন্ত সেই সীমানায় ঢোকেননি৷ তবে এবার সরাসরি তাঁর বিরুদ্ধে কাটমানির অভিযোগ উঠল৷ কয়েকজন খুদে তাঁর কাছে কাটমানি চেয়ে বসেছে৷ তাও আবার কেষ্টর খাসতালুকে৷ দাপুটে নেতার উদ্দেশ্যে তারা বলেছে, ‘আমাদের টাকা ফেরত চাই’৷ আর এরকম অভিযোগ উঠছে শুনে অনুব্রত কি করলেন? পাচনের বাড়ি দিলেন নাকি গুড় বাতাসা, নকুলদানা? না কোনওটাই করেননি, চুপচাপ বসেছিলেন৷ কারণ এমনই নির্দেশ ছিল ঝুলন কমিটির৷ বাস্তবে না হলেও নাটকের অনুব্রত মণ্ডল কিন্তু কাটমানি বিক্ষোভ দেখেও চুপ করে থেকেছেন৷ পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে বেলাড়ি গ্রামে ঝুলন উৎসবের থিম এবার কাটমানি ইস্যু৷

সেখানেই নাটকের বিষয়বস্তু কাটমানি৷ আর এবার অনুব্রত মণ্ডলের কাছেই কাটমানির টাকা ফেরত চেয়েছেন কচিকাচারা৷ ৬ দিন ব্যাপী এই ঝুলন উৎসবে শনিবার সন্ধ্যায় নাটকের মঞ্চে ক্ষুদেদের অভিনয় নগর কেড়েছে৷ তিন দশক ধরে আউশগ্রামের বেলাড়ি গ্রামে গ্রামীণ পাঠাগার এবং বেলাড়ি সূর্য সংঘ নামের দুটি সংস্থার তরফে গ্রামের ফুটবল মাঠে ঝুলন উৎসবের আয়োজন করা হয়। খুদে থেকে বড় সকলেই অভিনয় করে এই নাটকে৷ স্থানীয় লোকজন ছাড়াও আউশগ্রাম ছাড়িয়ে অন্যান্য গ্রাম থেকেও মানুষ ভিড় জমান ঝুলন দেখতে৷ এবার সেখানে ঝুলনের থিম ছিল কাটমানি৷ যা নিয়ে সরগরম রাজ্য-রাজনীতি৷ সেই নাটকে তুলে ধরা হয়েছে অনুব্রত মণ্ডলকে, যেখানে কেষ্ট জনতার দরবার করেছেন৷ গরীব উপোভোক্তারা তার কাছ থেকে কাটমানি ফেরত চেয়েছেন৷

বেলাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র রনি পাল অনুব্রতর ভূমিকায় অভিনয় করেছে৷ তাকে দেখতেও কেষ্টর মতোই নাদুসনুদুস৷ দীর্ঘবছর ধরে চলে আসা এই নাটকের সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই তা স্পষ্টই জানিয়েছেন সূর্য সংঘের কর্মকর্তা৷ মানুষকে আনন্দ দেওয়াই তাদের লক্ষ্য৷ আউশগ্রাম বিধানসভার দলীয় পর্যবেক্ষক অনুব্রত মণ্ডল৷ তাকে ফোন করা হলে বেশ খুশিই হয়েছেন কেষ্ট৷ বলেছেন, দারুন থিম হয়েছে৷ মানুষ মিলেমিশে আনন্দ করুক৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here