ডেস্ক: ‘মাফ করবেন, ভুল করে করে ফেলেছি। নিঃস্বার্থ ভাবে আমী ক্ষমা প্রার্থী আপনার কাছে।’ ঠিক এই ভাষাতেই চিঠি লিখে পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিক্রম সিং মাজিতিয়ার কাছে ক্ষমা চাইলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সম্প্রতি, পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মাজিতিয়া প্রকাশ্যে এনেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর সেই চিঠি।

যেখানে অরবিন্দ কেজরিওয়াল লিখেছেন, ‘কিছুদিন আগে আমি আপনার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায় যুক্ত থাকার অভিযোগ এনেছিলাম। কিন্ত্যু আমার এই বক্তব্য রাজনৈতিক ইস্যু হয়ে গিয়েছে। আমি জানতে পেরেছি আমার অভিযোগের কোনও প্রমান মেলেনি। এই বিষয়ে রাজনীতি করা উচিৎ নয়। আমার অভিযোগের ভিত্তিতে আপনি পাল্টা অমৃতসর আদালতে মানহানির মামলা করেন। আমি আমার অভিযোগ প্রত্যাহার করছে এবং ক্ষমা চাইছি।’

উল্লেখ্য, পঞ্জাবের প্রকাশ সিং বাদল সরকারের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী ও অপরাধীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ আনেন কেজরি। তাঁর অভিযোগের মূল লক্ষ্য ছিলেন পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিক্রম সিং মাজিতিয়া। তাঁর বিরুদ্ধে সরাসরি মাদক ব্যবসায় যুক্ত থাকার অভিযোগ আনেন তিনি। যার পাল্টা হিসাবে ২০১৬ সালের ২০ মে অমৃতসরের আদালতে কেজরির বিরুদ্ধে মানহানীর অভিযোগ দায়ের করেন মাজিতিয়া। সেই মামলা দীর্ঘদিন চলার পর এবার মামলা তুলে নিয়ে মাজাতিয়ার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।

কেজরির এই ক্ষমা চাওয়ার চিঠিতে নিঃসন্দেহে খুশি পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলে, ‘এটা একটা ঐতিহাসিক মুহূর্ত। শেষ পর্যন্ত সত্যের জয় হয়েছে। একজন মুখ্যমন্ত্রী আদালতে চিঠি দিয়ে আমার বিরুদ্ধে করা মন্তব্য প্রত্যাহার করে নিয়েছেন এবং ক্ষমা চেয়েছেন।’ সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘মানুষ ভুল করে। এটা মানুষের স্বভাব। উনি ভুল স্বীকার করে সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। মিথ্যা কথা বলে ভোট চাওয়া সমাজের কাছে ভালো নয়। আমি চাই সব রাজনীতিবিদরা এটা বুঝুক।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here