kolkata bengali news

ডেস্ক: একেবারের ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে লোকসভা নির্বাচন। আগামী ১১ এপ্রিল থেকে গোটা দেশজুড়ে ভোটগণনা প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। তবে এই নির্বাচনে দিল্লিতে আপ-কংগ্রেস জোট হবে কিনা সে বিষয়ে সংশয় রয়েছে। এর আগে রাজধানীতে জোট না হওয়ার জন্য অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গলায় স্পষ্ট আক্ষেপের সুর শোনা গিয়েছে। তবে এই জোট না হওয়ার দোষ সরাসরি কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুলের ঘাড়ে চাপালেন আপ প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়ালা।

তিনি অভিযোগ করেছেন, কয়েকদিন আগেই এই জোট প্রসঙ্গে তিনি রাহুলের সঙ্গে কথা বলেন। তবে রাহুল এই জোটকে সরাসরি না বলে দিয়েছেন। তবে কেজরিওয়ালের এই মন্তব্যের পর কংগ্রেস শিবিরের তরফ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। আপ-কং জোট নিয়ে অনেকে রাজি থাকলেও কিন্তু বেঁকে বসেছেন দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত। তিনি কোনও মতেই আপের সঙ্গে জোটে যেতে নারাজ। কার্যত তাঁর এহেন মনোভাবের ফলে একেবারে বেকায়দায় পড়েছে কংগ্রেস শিবির। পরিস্থিতি এতটাই বেগতিক যে, দুই পক্ষের মধ্যে মধ্যস্থতার জন্য রীতিমতো তলব করা হয়েছে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারকে।

 

কংগ্রেসের বর্ষিয়ান নেত্রী তথা দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিতের দাবি, কংগ্রেসের সঙ্গে আম আদমি পার্টির জোট কংগ্রেসের জন্য নেতিবাচক ফল বয়ে আনবে। এর পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, কেজরিওয়াল রাহুলকে কোনওরকমের জোটের প্রস্তাবই দেননি। এই বিষয়ে আপ প্রধান বলেন, রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেছি। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত সেই স্তরের গুরুত্বপূর্ণ নেত্রী নন। তাই তাঁর কথাকে খুব একটা আমল দিচ্ছি না।””

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here