ডেস্ক: শনিবারই শবরীমালা বিতর্কে ইন্ধন জুগিয়ে ভক্তদের পাশে থাকার কথা জানিয়েছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। তাঁর এই মন্তব্যের পরেই কেরলের মুখ্যমন্ত্রী তথা সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়ন অমিত শাহের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। মূলত তাঁর এই হিন্দুত্ববাদী প্রতিক্রিয়াকে হাতিয়ার করেই বিজেপি সমালচনায় সরব হয়েছেন পিনারাই। কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর বলেন, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ সংবিধান ও সুপ্রিমকোর্ট বিরোধী কথা বলেছেন। একজন বিজেপি সভাপতির এরকম সংবিধান বিরোধী কথা বলা উচিত হয়নি।

গতকাল কেরলের কান্নুরে এক জনসভায় যোগ দিয়েছিলেন অমিত শাহ। সেই সভাতেই শবরীমালা প্রসঙ্গে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি বলেন, বিজেপি আয়াপ্পা ভক্তদের পাশে পর্বতের মত দাঁড়িয়ে রয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট সমস্ত বয়সের মহিলাদের শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশাধিকারের স্বপক্ষে রায় দিয়েছিল। এই রায়েরই বিরোধিতায় সোচ্চার হয় সমস্ত পুরুষ সমর্থকরা। শাহের বক্তব্য কেরলে বিজেপি তাদের ক্ষমতার অপব্যবহার করছে। ইতিমধ্যেই ২ হাজারের বেশি বিজেপি কর্মী সমর্থক গ্রেফতার হয়েছে। বিজেপি সভাপতির আয়াপ্পা সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ানোকে কেন্দ্র করে বিজয়ন বলেন, অমিত শাহ এবং তাঁর দল যে সংবিধান মানেন না তা তাঁর এহেন বক্তব্যের পর আরও স্পষ্ট হয়ে গেছে। তিনি বলেন বিজেপি মৌলিক অধিকারকেও মান্যতা দিচ্ছে না। একদিকে যেমন ভক্তদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন তিনি তেমনই অন্যদিকে ঘুরিয়ে সুপ্রিমের রায়ের বিরোধিতা করেছেন অমিত শাহ। কার্যত শবরীমালা বিতর্কে রাজনীতির রঙ মাখিয়ে কেরলের পরিবেশ অশান্ত করার খেলায় মেতেছে বিজেপি। এমনই দাবি কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here