kerala poet

মহানগর ডেস্ক:  একদিন আগেই ল্যানসেট তাদের সম্পাদকীয়তে করোনা ব্যর্থতার জন্য মোদি সরকারকে দুষেছিল। অভিযোগ করেছিল, করোনা মোকাবিলা করার থেকে মোদি সরকারের বেশি আগ্রহ সরকার বিরোধী মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে মুছে ফেলার। তারই যেন একটা প্রমাণ কেরলের মালয়ালি কবি কে সচ্চিদানন্দন। বিজেপি কেরলে খুব খারাপ ফল করেছে। একটিও আসন পায়নি। তারই সমালোচনা করায় মালয়ালি কবি কে সচ্চিদানন্দনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ২৪ ঘণ্টা বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল।

অভিযোগ, সদ্য কেরলে বিজেপির গোহারাকে ব্যঙ্গ করে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন  কবি সচ্চিদানন্দন। এরপরেই তাঁর ফেসবুক পোস্ট ২৪ ঘণ্টার জন্য সাপসেন্ড করে দেওয়া হয় বলে কবি অভিযোগ করেছেন। নাট্যকার, সমালোচক এবং সাহিত্য অকাদেমির প্রাক্তন সচিব সচ্চিদানন্দন বলেন, শনিবার রাতে আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়। কারণ কেরল বিধানসভা নির্বাচনে অমিত শাহ ও বিজেপি ইউনিটকে নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক ভিডিও পোস্ট করেছিলাম। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়েও একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলাম। তখনও আমাকে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

এর আগে হ্যাশট্যাগ মোদিরিজাইন টুইটার থেকে মোবাইলেও ট্রেন্ড হয়ে যায়। সেই হ্যাশট্যাগকে ফেসবুকের তরফে ব্লক করে দেওয়া। এরপর দেশ জুড়ে তীব্প সমালোচনার ঝড় ওঠে। বিতর্কের মুখে পড়ে ফেসবুক। অভিযোগ ওঠে জুকারবার্গ ও মোদি দুই ভালো বন্ধু। বন্ধু মোদির বিরুদ্ধে এরকম কথা তিনি শুনতে পারছেন না। এরপরেই ফেসবুক সেই হ্যাশট্যাগের ওপর ব্লকটা সরিয়ে নেয়। ফেসবুকের তরফে জানানো হয়, ভুল করে ওই হ্যাশট্যাগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তবে কতটা সঠিক বিবৃতি সেই সময় ফেসবুক দিয়েছিল, সেই নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here