kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: অক্টোবরেই মার্কিন সেনার হামলার মুখে আত্মঘাতী হয়েছিল আইসিস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি৷ এবার পুলিশের জালে বাগদাদির বোন৷  আঙ্কারার এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, সিরিয়ার আজাজ শহরে স্বামী ও পুত্রবধূ-সহ ধরা পড়েছে নিহত আইএস প্রধানের বোন রাসমিয়া আওয়াদ।৷ ধরা পড়ার সময় তার সঙ্গে তার পাঁচ সন্তান ছিল বলে খবর৷ বাগদাদির বোনকে জেরা করে আইএস সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করছে তুরস্ক পুলিশ৷

বাগদাদির বোনের কাছ থেকে আইসিসয়ের অন্দরের কার্যকলাপের খবর পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ তুরস্ক প্রশাসনের ওই অফিসার জানান, ধরা পড়ার সময় রাসমিয়ার সঙ্গে ছিলেন তাঁর পাঁচ সন্তান। অফিসার জানিয়েছেন, “আমরা আশা করছি বাগদাদির বোনকে জেরা করে আইসিস সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পারব।” যদিও কোনও নিরপেক্ষ সূত্র থেকে এখনও জানা যায়নি, যিনি ধরা পড়েছেন তিনি সত্যিই বাগদাদির বোন কিনা।

২০১৪ থেকে ‘১৭ সালের মধ্যে ইরাক ও সিরিয়ার বিশাল অঞ্চল নিয়ন্ত্রণ করত বাগদাদি। নিজেকে খলিফা বলে দাবি করত সে৷ পরে যদিও মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনী আইসিসের অধীনে থাকা এলাকা পুনর্দখল করে৷ গোটা বিশ্বের কাছে ত্রাস ছিল এই বাগাদাদি৷ তাকে খতম করা তাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে বড়সড় সাফল্য৷ উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার একটি অডিও টেপ প্রকাশ করে শীর্ষ নেতার মৃত্যুর কথা স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট। একইসঙ্গে আমেরিকার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে ওই টেপটিতে। পাশাপাশি নয়া প্রধানের নামও ঘোষণা করে আইএসআইএস। বর্তমানে আইএস নিয়ন্ত্রণ করছে কুখ্যাত জঙ্গি আবু ইব্রাহিম আল হাশিমি আল কুরেশি। এদিকে বাগদাদির বোনকে হাতেনাতে পাকড়াও করাও নেহাতই সহজ কাজ ছিল না তুরস্কের কাছে৷ তাই রাসমিয়ার গ্রেফতারিও তুরস্ক বাহিনীর বড় সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here