Untitled 1 6
Untitled 1 6

ডেস্ক: কোরিয়ার শাসক কিম জং উনের সঙ্গে দেখা করার বিষয়ে ফের একবার মুখ খুললেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি নিশ্চিত করলেন যে, কিমের সঙ্গে ১২ জুন দেখা করছেন সিঙ্গাপুরে। কিন্তু দুই রাষ্ট্রনেতার এই হাই ভোল্টেজ বৈঠকের আগেই আমেরিকার সামনে এল এক অদ্ভুত সমস্যা। উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন সিঙ্গাপুরের এমন এক হোটেলে থাকার ব্যবস্থা করতে বলেছেন, যার একদিনের ভাড়া ৬ হাজার ডলার, যা ভারতীয় মুদ্রায় ৪ লাখেরও বেশি। আর এই হোটেলের খরচা কিম নয়, দিতে হবে আমেরিকা সরকারকে।

ওয়াশিংটন পোস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী, হোয়াইট হাউসের চিফ অফ স্টাফ জো হেগিন এবং কিম জং এর চিফ অফ স্টাফ কিম জং সান বৈঠকের দশদিন আগে থেকেই সিঙ্গাপুরে গিয়ে বৈঠকের প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করে দিয়েছেন। কিম সেখানে একটি বিলাসবহুল হোটেলে থাকার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন। তাঁর আরও দাবি, হোটেলের ভাড়া অন্য কাউকে দিতে হবে। কিম এই হোটেলের প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে থাকতে চেয়েছেন বলেও জানা গেছে। যার ভাড়া ৪ লক্ষের ওপর। হোটেলটি ১৯২৮ সালে সিঙ্গাপুর নদীর ওপর তৈরি করা হয়। এটি শহরের সবথেকে আলাদা ও আকর্ষণীয় হোটেল বলে মনে করা হয়। এই হোটেলে প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে আলাদা করে যাওয়ার জন্য রুমের মধ্যে একটি এলিভেটার আছে।

এখনও অবধি এই বৈঠকের জায়গা ঠিক হয়নি। কিন্তু সম্ভাব্য জায়গা হোটেল সাংরি-লা হতে পারে, যেখানে কিছুদিন আগেই নরেন্দ্র মোদী সহ অন্যান্য দেশের রক্ষামন্ত্রীদের আমন্ত্রন জানানো হয়েছিল। আপাতত ১২ জুনের এই বৈঠকের দিকেই তাকিয়ে গোটা দুনিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here