corona news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবার জোর করে করোনার ওষুধ খাওয়ানোর অভিযোগ উঠল কলকাতা পুরসভার বিরুদ্ধে। সংক্রমণ রুখতে বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাওয়ানো শুরু করেছে কলকাতা পুরসভা। যদিও এই ওষুধ সেবনের ক্ষেত্রে রেজিস্টার্ড ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ীই তা খাওয়ানোর কথা বলা হয়েছে বারবার করে। কিন্তু অনেকক্ষেত্রেই পুরসভা জোর করে এই ওষুধ খাওয়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সাধারণ মানুষ। যদিও এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে পুরসভা।

দক্ষিণ কলকাতার চেতলা অঞ্চলের কয়েক জন বাসিন্দার অভিযোগ, কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা এলাকার একাধিক বাসিন্দাকে জোর করে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাইয়েছেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের আরও দাবি, ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ইতিমধ্যে অনেকের শরীরেই দেখা দিয়েছে। শুধু তাই নয়, ওষুধ নিতে না চাইলে নাম-ধাম লিখে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগও উঠেছে পুরকর্মীদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় এলাকাজুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে কর্তৃপক্ষ। সংশ্লিষ্ট বিভাগে কর্মরত আধিকারিকরা জানিয়েছেন, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কাউকে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাওয়ার জন্য জোর করা হয়নি।

উল্লেখ্য, আইসিএমআর স্পষ্ট ভাবেই জানিয়ে দিয়েছে যে, রেজিস্টার্ড চিকিৎকের প্রেস্ক্রিপশন ছাড়া কাউকে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাওয়ানো উচিত নয়। পাশাপাশি করোনা ধরা পড়েছে এমন রোগী যারা বাড়িতেই আইসোলেশনে রয়েছেন তাদের ক্ষেত্রেও প্রয়োগ করা যেতে পারে এই ওযুধ। তবে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন-এর হাই ডোজে অস্বাভাবিক হৃদস্পন্দনের মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে বলেও সতর্ক করেছিলো সংশ্লিষ্ট সংস্থা। সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ প্রয়োজন বলে জানিয়েছিল তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here