kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লকডাউনের মধ্যেই রেকর্ড পুর কর আদায়। মাত্র দশ দিনেই একশো কোটি পুর কর আদায় করল কলকাতা পুরসভা। যা এত দিন যাবৎ নজিরবিহীন। যদিও এই ঘটনায় নাগরিকদেরই কৃতিত্ব দিয়েছেন কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। জনসচেতনতাই কলকাতা পুরসভাকে আগামী দিনে মডেলে পরিণত করবে বলে এদিন আশা প্রকাশ করেন তিনি।

লকডাউনের জেরে ২২ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বন্ধ ছিল পুরসভার সম্পত্তি কর বা অন্যান্য কর সংগ্রহের বিভাগ। এদিকে কোষাগারে টান পড়তে থাকায় খুলে দেওয়া হয় অনলাইন পরিষেবা। যদিও অনলাইনে মাত্র ৩০ কোটি টাকা জমা পড়ছিল। যার ফলে ‘ভাঁড়ে মা ভবানী’ হাল হয়েছিল কলকাতা পুরসভার।

লকডাউন শুরুর আগে, ২১ মার্চ পর্যন্ত ৮৫০ কোটি সংগ্রহ হয়েছিল। কিন্তু তারপরেই শুরু হয়ে যায় লকডাউন। তবে ১ জুন থেকে আনলক পর্ব শুরু হতেই পরিস্থিতি বদলাতে থাকে। ১ জুন থেকে আনলক পর্বের শুরুতেই পুরোদমে খুলে যায় কর আদায় বিভাগ। ১ জুন থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত প্রায় ২৬০ কোটি জমা পড়ে পুরসভার কোষাগারে। এরমধ্যে ১৫০ কোটি টাকার একটা অংশ মাত্র দশ দিনেই সংগ্রহ করা গিয়েছে বলে দাবি করেছেন পুর আধিকারিকদের।

উল্লেখ্য, করোনা ও আমফান রাজ্যের জোড়া বিপর্যয়ের জেরে শেষ কয়েক মাস রাজস্ব আদায়ে বেগ পেতে হয়েছে কলকাতা পুরসভাকে। এই পরিস্থিতিতে কোষাগার চাঙ্গা করতে ১০০ শতাংশ সুদ ও জরিমানা মুকুব করেছিল পুর কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও কর আদায়ের ক্ষেত্রে চালু করা হয়েছিল অনলাইন ব্যবস্থা। পাশাপাশি সম্পত্তি কর আদায় করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্তাদের লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। এই একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণের পর অবশেষে মিলল ফল। নজিরবিহীনভাবে অগাস্ট মাসের প্রথম দশ দিনেই একশ কোটি সম্পত্তি কর আদায় হল কলকাতা পুরসভার কোষাগারের। যা কার্যত এতদিনের রেকর্ড বলে দাবি পুর কর্তৃপক্ষের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here