kolkata news

নিজস্ব প্রতিবেদন, কলকাতা: শহরের দ্বিতল সুলভ শৌচালয়ে এবার সেফ হোম তৈরির ভাবনা কলকাতা পুরসভার। পাশাপাশি শহরের নাইট সেন্টারগুলোতেও সেফ হোম খোলার ভাবনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে পুরসভা সূত্রে। এই ধরনের সেফ হোমগুলিতে শহরের উপসর্গহীন বা মৃদু উপসর্গ যুক্ত ভবঘুরে ও বস্তিবাসীদের পৃথকভাবে রাখার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

কলকাতায় বর্তমানে নাইট শেল্টারের সংখ্যা মোট ৪২ টি। এর মধ্যে কলকাতা পুরসভার নিজস্ব নাইট সেন্টার রয়েছে ৭ টি। বাকি নাইট সেন্টারগুলি রাজ্য সরকারের সমাজ কল্যাণ দফতরের আওতাধীন। যদিও নাইট সেন্টারগুলির দেখাশোনার দায়িত্ব রয়েছে কলকাতা পুরসভাই। কলকাতা পুরসভা সূত্রে খবর, এই ৪২ টি নাইট শেল্টারের অধিকাংশই বর্তমানে খালি অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এদিকে উত্তরোত্তর শহরে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সেফ হোমের অধিক প্রয়োজন পড়ছে। তাই এই সমস্যা সমাধানে এবার পড়ে থাকা নাইট শেল্টার গুলিকে কাজে লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা পুরসভা।

জানা গিয়েছে, সেফ হোমের ক্ষেত্রে জনবহুল এলাকা থেকে দূরে রয়েছে এমন নাইট শেল্টারগুলিকেই বেছে নেওয়া হবে। যারা উপসর্গহীন বা স্বল্প উপসর্গ যুক্ত করোনা রোগী তাদের এনে এইসব সেফ হোমে বিনামূল্যে সরকারি পরিষেবায় রাখা হবে। সরকারি যে কয়টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বা সেফ হোম রয়েছে সেগুলির ওপর চাপ কমাতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। পুরসভা সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই নির্দিষ্ট নাইট শেল্টারগুলি নির্বাচন করে পরিকাঠামো তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here