ডেস্ক: বিয়ে বাড়িতে যেতে পছন্দ করেন না এমন ব্যক্তি খুব কমই রয়েছেন। তা সে খাদ্যরসিক হওয়ার কারণে হোক বা অন্য কোনও কারণে। ব্যতিক্রম নয় দেশের প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তারও বিয়েবাড়ি যেতে ভাল লাগে। তবে কারণটা সুস্বাদু খাওয়া-দাওয়া বা আত্মীয় স্বজনের সঙ্গে দেখা করার জন্য নয়। সম্পূর্ণ একটি অন্য কারণে বিয়ে বাড়ি যাওয়া খুবই পছন্দের মোদীর।

চলতি মাসের ৭ তারিখ মন্ত্রীসভার বৈঠকে এই কথা নিজেই জানান প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে সকল মন্ত্রকের মন্ত্রী সহ আরও বহু আমলারা উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই বৈঠক চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ”আমার বিয়েবাড়ি যেতে ভীষণ ভাল লাগে। কারণ, বিয়েবাড়ি গেলে কেউ আমার কাছে কোনও আবেদন বা সুপারিশ নিয়ে আসেন না। সবার সঙ্গে খোলামনে কথাবার্তা বলা যায়। একই রকম সরকারি আধিকারিকদের অনুষ্ঠানে যোগ দিতেও আমার খুব ভাল লাগে। কারণ, চার দেওয়ালের মধ্যে হওয়া কথার কোনও সাক্ষী থাকে না। ফাইলের মধ্যে কাজ করেই তাঁরা নিশ্চিন্ত হয়ে যান।”

প্রসঙ্গত এই অনুষ্ঠানের পৌরহিত্য করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেখানে সরকারি কর্মী ও আমলাদের দফতর ছেড়ে বাইরে গিয়ে কাজ না করার অভ্যাসের কথা বলতে গিয়ে এই কথাগুলি টেনে আনেন মোদী। তিনি আরও বলেন, দেশের পিছিয়ে থাকা জেলাগুলির ক্ষেত্রে সবসময় সরকারি আধিকারিকদের উপর ভরসা না রেখে মন্ত্রীদের এগিয়ে আসার পরামর্শ দেন তিনি। এদিনের বৈঠকে পিছিয়ে থাকা ১১৫টি জেলার উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা হয় মন্ত্রী ও আমলাদের মধ্যে। প্রধানমন্ত্রী কড়া নির্দেশ, জেলাগুলিতে গিয়ে উন্নয়নের কাজ নিজে করতে হবে মন্ত্রীদের।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here