সুদীর্ঘ পাঁচ মাস পর ফের ওয়ানডে সেঞ্চুরি করে তৃপ্ত কোহলি

0

মহানগর ওয়েবডেস্ক: একটা সময় যার ব্যাট থেকে প্রায় প্রতিটা ম্যাচ থেকেই সেঞ্চুরি আসছিল, তাঁর ব্যাটেই আচমকা সেঞ্চুরির খরা। না, এমনটা নয় যে তিনি রান পাচ্ছিলেন না। কিন্তু সেই হাফ সেঞ্চুরিগুলিকে সেঞ্চুরিতে পরিণত যেন কিছুতেই করতে পারছিলেন না। তবে দীর্ঘ পাঁচ মাসের প্রতীক্ষা অবশেষে মিটল। রবিবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ৪২তম আন্তর্জাতিক ওয়ানডে সেঞ্চুরি হাঁকালেন ভারত অধিনায়ক। আর তারপর তাঁর চোখেমুখের অভিব্যক্তিই বলে দিচ্ছিল, একদিন কতটা চাপে ছিলেন তিনি।

ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে বিরাটের ১২০ রানে ভর করে ক্যারিবিয়ান বাহিনীকে ২৮০ রানের টার্গেট দেয় ভারত। বিরাটের সঙ্গে যোগ্য সঙ্গত দেন শ্রেয়স আইয়ার। জবাবে ব্যাট করতে নেমে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ২১০ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৫৯ রানে ম্যাচ জিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ভারত।

এদিন ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে ২০০০ রান করার গণ্ডি পেরোন ভিকে। ভাঙেন জাভেদ মিয়াঁদাদের ২৬ বছর পুরনো রেকর্ড। একই সঙ্গে ওয়ানডে রানের বিচারে সৌরভ গাঙ্গুলির ১১৩৬৩ রানের রেকর্ডও পেরিয়ে যান তিনি। শচীন তেন্ডুলকরের পর এখন কোহলিই ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক (ওয়ানডেতে)।

দীর্ঘদিন পর শতক করে স্বাভাবিকভাবেই খুশি কোহলি। তিনি বলেন,

‘দলের প্রয়োজনে শতরান করতে পেরে আমি খুশি। শিখর আর রোহিত খুব একটা বড় রান করতে পারেনি। প্রথম তিন ব্যাটসম্যানের মধ্যে কোনও একজনকে দলের প্রয়োজনে বড় রান করতেই হয়। আজ আমার পালা ছিল।’

কোহলির সঙ্গে দুরন্ত খেলেন শ্রেয়স আইয়ারও। ৬৮ বলে ৭১ রান করেন তিনি। তরুণ শ্রেয়সের এই ইনিংস নিয়েও উচ্ছ্বসিত কোহলি। ‘শ্রেয়স খুব আত্মবিশ্বাসী, অ্যাটিটিউডও সঠিক। আমার ওপর থেকে চাপ অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছিল। আমি আউট হয়ে যাওয়ার পরেও কিন্তু নিজের খেলা খেলে গিয়েছে’, বলেন বিরাট কোহলি।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here