bengali news
TOPSHOT - Healthcare workers hold a tablet in front of a COVID-19 coronavirus patient during a video call with relatives at the Intensive Unit Care (ICU) of the Ramon y Cajal Hospital in Madrid on April 14, 2020. - Spain's death toll from the novel coronavirus topped 18,000, as the rise in new infections dropped to its lowest level since the country imposed a nationwide lockdown last month. (Photo by OSCAR DEL POZO / AFP) (Photo by OSCAR DEL POZO/AFP via Getty Images)

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শহরের বেসরকারি হাসপাতালের পর এবার সরকারি হাসপাতালেও ভার্চুয়াল ভিজিটিং আওয়ার শুরু হল। বর্তমানে করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার হওয়া এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালে শুরু হল ভার্চুয়াল ভিজিটিং আওয়ার। এই প্রথম সরকারি হাসপাতালে শুরু হল এই ধরনের ভিজিটিং আওয়ার। বুধবার এমনটাই জানা গিয়েছে হাসপাতালের তরফে।

জানা যাচ্ছে, প্রতিদিন সব করোনা রোগী ভিডিও কলের মাধ্যমে বাড়ির লোকেদের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বিকেল ৪টে থেকে ৬টার পর্যন্ত চলবে এই ভার্চুয়াল ভিজিটিং আওয়ার। বাড়ির লোকদের নিয়মিত দেখতে পারলে মনের জোর পাবেন করোনা আক্রান্তরা। এই উদ্দেশ্যে শিগগিরই আইসোলেশন ওয়ার্ডে ট্যাব রাখার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে যতক্ষণ না এই ব্যবস্থা হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত চিকিৎসক ও নার্সদের স্মার্টফোনই ব্যবহার করা হবে এক্ষেত্রে। চিকিৎসক ও নার্সদের স্মার্টফোনের মাধ্যমে চলবে ভিডিও কনফারেন্স।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের তরফে এক নির্দেশিকা জারি করা হয়। তাতে বলা হয়, করোনা হাসপাতালে মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবে না। এরপরেই কেন্দ্রীয় দল পর্যবেক্ষণে আসে রাজ্যে। তারা জানান, একেই করোনা আক্রান্তদের সাথে পরিবারের মানুষের দেখা করতে না দেওয়ায় তাঁদের মনের উপর চাপ পড়ছে। তার উপর ফোনেও কথা বলতে না পারলে সেই চাপ আরও বেড়ে যাবে। অন্যদিকে, পরিবারের অন্য সদস্যরা অনেকক্ষেত্রেই কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। তাদের খোঁজ না পেলে আরো উদ্বিগ্ন হতে পারেন আক্রান্তরা। তাই যেন ফোন ব্যবহার করতে দেওয়া হয়।

এরপরেই সল্টলেকের আমরি হাসপাতালে প্রথম শুরু হয় ভার্চুয়াল ভিজিটিং আওয়ার। এবার শহরের সরকারি করোনা হাসপাতাল এম আর বাঙ্গুরে শুরু হল এই ব্যবস্থা। এম আর বাঙ্গুরের দেখাদেখি অন্যান্য হাসপাতালে এই ব্যবস্থা চালু হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here