bengali news

Highlights

  • ১৫০ জন অজ্ঞাতপরিচয়দের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে
  • অভিযোগ আনা হয়েছে, সরকারি কর্মীদের কাজে বাধা দেওয়া, হাঙ্গামা বাধানোর
  • স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা রুজু করল কলকাতা পুলিশ

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কলকাতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আগমন নিয়ে আগে থেকে পরিস্থিতি উত্তপ্ত ছিল, তারওপর রাজভবন মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর সঙ্গে দেখা করার পর পরিস্থিতি আরও বিগড়ে যায়। পরবর্তী সময় মুখ্যমন্ত্রী ফের সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে গেলে তাঁর সামনে চরম বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আন্দোলনকারীরা। এমনকি তাঁকে ঘেরাও পর্যন্ত করা হয়। এই ঘটনায় এবার স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা রুজু করল কলকাতা পুলিশ। প্রায় ১৫০ জন অজ্ঞাতপরিচয়দের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ১৫০ জন অজ্ঞাতপরিচয়দের বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য ধারায় মামলা করা হয়েছে। অভিযোগ আনা হয়েছে, সরকারি কর্মীদের কাজে বাধা দেওয়া, হাঙ্গামা বাধানোর। ওইদিনের ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আন্দোলনকারীদের চিহ্নিত করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও পুলিশের দাবি, ‘নিষ্ক্রিয়’ নয়, এই প্রমাণ করতেই নাকি বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে, তবে কাউকেই গ্রেফতার করা হবে না! কিন্তু পুলিশের এই বক্তব্য বিতর্ক ঢাকতে পারেনি। অনেকে মনে করছেন এটা সরকারের দমন-পীড়ন নীতি। গণতান্ত্রিক পথে আন্দোলনে সরকার এভাবে পদক্ষেপ নিতে পারে না।

এদিকে, গ্রেফতারির কথা এড়িয়ে গেলেও পার্ক সার্কাস অঞ্চল থেকে একজনকে সিএএ বিরোধিতার জন্য পাকড়াও করেছিল পুলিশ। যদিও তারা জানাচ্ছে, শুধু জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে তোলা হয়েছিল, রাতেই ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে জানা গিয়েছে, যে স্থানে সেদিন বিক্ষোভ চলছিল, সেখানে সিভিল পোশাকে পুলিশ ঘুরে তল্লাশি চালাচ্ছে। এমনকি আশেপাশের এলাকাতেও নজরদারি চালানো হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ সেরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সিএএ মঞ্চে আসতেই পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে মমতার মঞ্চের সামনে চলে আসেন বাম ছাত্ররা। স্লোগান ওঠে ‘সেটিং হল তলে তলে দিদি তুমি কার দলে’। মমতার দিকে আঙুল তুলে এক ছাত্র প্রশ্ন ছোড়েন ‘তাহলে কি পুরোটাই সেটিং?’ পাল্টা ছাত্রদের শান্ত হতে বলে মমতা বলেন, ‘মাথা গরম করবেন না আপনারা শান্ত হন। আপনাদের আন্দোলন আমাদেরও আন্দোলন।’ তবে পরিস্থিতি শান্ত হয়নি পাল্টা স্লোগান ওঠে, ‘মোদীর এজেন্ট মমতা, জেনে গেছে জনতা।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here