কাটল জল্পনা, বিধাননগর রাজারহাট পুরনিগমের পরবর্তী মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী

0
124

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সমস্ত জল্পনার অবসান। সুজিত বোস নন। অবশেষে রাজারহাট বিধাননগর পুরনিগমের মেয়রের কুর্সিতে বসছেন কৃষ্ণা চক্রবর্তী। এদিন নবান্নে দীর্ঘক্ষণের এক হাইভোল্টেজ বৈঠকের পর দীর্ঘদিনের অনুরাগী কৃষ্ণা চক্রবর্তীই নামেই সিলমোহর দেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কৃষ্ণা অবশ্য মুখে প্রকাশ না করলেও আকারে ইঙ্গিতে একাধিকবার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, সব্যসাচীর পর তিনিই মেয়রের চেয়ারে বসতে চান। বস্তুত দলের প্রতি তাঁর দীর্ঘদিনের আনুগত্যই এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে দাম পেল। মত রাজনৈতিক মহলের।

এই নিয়ে অবশ্য কোনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়নি। তবে সূত্রের খবর, বিধাননগরের মেয়র পদে কৃষ্ণা চক্রবর্তীর নামই চূড়ান্ত করে ফেলেছেন মমতা। মঙ্গলবার দুপুরে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, বিধাননগর পুরসভার চেয়ারপার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তী, ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায় ও মেয়র পারিষদ দেবাশিষ জানাকে নিয়ে নবান্নে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই কৃষ্ণা চক্রবর্তীর নামে সিলমোহর পড়ে। ককথায় বলতে গেলে, কৃষ্ণার বহুদিনের ইচ্ছেপূরণ হল। একই সঙ্গে জানা গিয়েছে, ডেপুটি মেয়রের পদে বহাল থাকবেন তাপস চট্টোপাধ্যায়। পরবর্তী চেয়ারপার্সন হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে অনিতা মণ্ডলকে।

প্রসঙ্গত, বিধাননগর মেয়রের পদ থেকে সব্যসাচী দত্ত ইস্তফা দেওয়ার পর থেকেই পরবর্তী মেয়র হিসেবে অনেকগুলি নাম উঠে এসেছিল। যার মধ্যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ সুজিত বোসের নামই সবচেয়ে জোরালো ছিল বলা চলে। ভেসে আসছিল ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়ের নামও। তৃণমূল সূত্রে খবর, বিধাননগর পুরনিগমের অধিকাংশ কাউন্সিলরের পছন্দ কৃষ্ণা চক্রবর্তী। একই সঙ্গে দীর্ঘদিনের আনুগত্যে নেত্রীরও প্রিয়পাত্র হয়ে উঠেছিলেন তিনি। সাম্প্রতিক সময়ে বিজেপি যেভাবে প্রভাব বাড়াচ্ছে, তাতে নিজের আস্থাভাজন কারোর উপরই মমতা ভরসা রাখবেন বলে মনে করা হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত কৃষ্ণাই নামেই তাই সিলমোহর পড়ল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here