kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, ব্যারাকপুর: আদ্যাপিঠ মন্দিরে বাসন্তী পুজো তথা রাম নবমী তিথির পূণ্য লগ্নে, জাতি, ধর্ম এবং বর্ণ নির্বিশেষে প্রায় ২ হাজার বালিকার কুমারী পুজো অনুষ্ঠিত হল। এই কুমারী পুজোর প্রথম সূচনা হয় ১৩২৭ সালে। চৈত্র সংক্রান্তি উপলক্ষে আদ্যাপিঠ মন্দিরে অন্নদা ঠাকুর প্রথম কুমারী পুজোর সূচনা করেছিলেন।সেদিন পুজোর পর তিনি যখন তাদের আসন তুলতে যান, তিনি দেখেন এক অলৌকিক ঘটনা।জানা গিয়েছে, তিনি সেদিন ২৮ জন বালিকার কুমারী পুজো দিয়েছিলেন। কিন্তু আসন তুলতে গিয়ে দেখেছিলেন ২৯ জন পূজিত হয়েছেন।

 

অন্নদা ঠাকুর স্বপ্নাদেশে জানতে পারেন, তিনি যে ওই ২৮ জন বালিকার পুজো দিয়েছেন তার মধ্যে ছিলেন স্ব্যং আদ্যা মা। এরপর থেকেই প্রত্যেক বছর আদ্যাপিঠে কুমারী পুজো অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। জাতি, ধর্ম ভুলে সকলেই এই পুজোয় সামিল হয়েছেন। রবিবার কুমারী পুজো উপলক্ষে আদ্যাপিঠ আশ্রমে ছিল মহা উৎসব।

আদ্যপিঠ আশ্রমে অন্যান্য বছরের মত এবছর ও নিষ্ঠা সহকারে বাসন্তী পুজো অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন বাসন্তী পুজো উপলক্ষে কয়েক হাজার ভক্তের সমাগম হয়েছিল আদ্যাপিঠ আশ্রমে। আশ্রমের প্রধান ব্রহ্মচারী মুরাল ভাই সাংবাদিকদের জানান, সারাদিন কুমারী পুজো চলবে। নারী শক্তিকে জাগ্রত করতে প্রায় ২ হাজার কুমারীকে এদিন পুজো করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here