kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিঁথি থানায় পুলিশ হেফাজতে এক প্রৌঢ়র মৃত্যুর ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে নতুন করে নির্দেশিকা জারি করে সব থানাকে সতর্ক করল লালবাজার। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের কথা মনে করিয়ে দিয়ে শহরের সব ডিসি এবং সমস্ত থানার ওসিদের নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে লালবাজার। বুধবার ইমেলের মাধ্যমে এই নির্দেশিকা জারি করেছেন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান।

এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সব থানার লকআপ এবং সেরেস্তায় সিসিটিভি ক্যামেরা থাকা বাধ্যতামূলক। থানার সবকটি ক্যামেরা ঠিকমতো কাজ করছে কিনা নিয়মিত তা পরীক্ষা করতে হবে থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকদের। পাশাপাশি এও মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে, কোনও ব্যক্তিকে গ্রেফতার করলে বা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হলে থানায় ঢোকার এবং বেরোনোর সময় অবশ্যই মেডিকেল চেকআপ করতে হবে। থানার রেকর্ডে রাখতে হবে সেই মেডিক্যাল রিপোর্ট। রাজ্য সরকার বনাম ডিকে বসুর মামলায় শীর্ষ আদালতের রায় মনে করিয়ে দিয়ে পুলিশ আধিকারিকদের বলা হয়েছে, কোন ব্যক্তিকে হেফাজতে নেওয়ার আগে নির্ভুলভাবে তাকে পরীক্ষা করতে হবে। নজরব রাখতে হবে, লক আপের ভেতর নিয়ে যাওয়ার অনুমতি নেই এমন কোন অবাঞ্চিত বস্তু যাতে ভেতরে ঢুকতে না পারে।

কিছুদিন আগেই চুরির অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাজকুমার সাউ নামে এক প্রৌঢ়কে ডেকে পাঠায় সিঁথি থানার পুলিশ। এরপরেই পুলিশি হেফাজতে তার মৃত্যু হয়। ওই ব্যক্তিকে পুলিশ পিটিয়ে মেরেছে বলে অভিযোগ করে মৃতের পরিবার। সেই ঘটনার তদন্ত করছে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ। পুলিশের বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগে যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছিল লালবাজার। ইতিমধ্যেই সিঁথি থানার অভিযুক্ত তিন সাব ইন্সপেক্টরকে ক্লোজ করেছে লালবাজার। তাই ভবিষ্যতে এই ধরনের অভিযোগের পুনরাবৃত্তি যাতে আর না হয়, তার জন্যই সমস্ত থানাকে নিজেদের কর্তব্য মনে করিয়ে দিয়ে, নয়া নির্দেশিকা জারি করল কলকাতা পুলিশ, এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here