নিজস্ব প্রতিবেদক, বনগাঁ: ফসল নষ্ট করে জমির মালিককে মারধরের অভিযোগ উঠল এলাকার কাউন্সিলরের স্বামীর বিরুদ্ধে৷ দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে রাস্তা অবরোধ করল স্থানীয়রা। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার গাইঘাটা থানার ইছাপুর গ্রাম। সোমবার সকাল ১০ টা নাগাদ ইছাপুর গ্রামের এক কৃষক অসিত পাল এক বিঘা জমিতে পটল চাষ করেছিলেন৷ তখনই পাশের গ্রামের অশোক দাস এলাকার প্রোমোটার রমেশ দাসকে নিয়ে কৃষক অসিত পালের জমির ফসল কেটে দিয়ে তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ। অশোক দাস গোবরডাঙ্গা পুরসভার এক নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর সবিতা দাসের স্বামী। জানা গিয়েছে, অসিত পাল বছর দশেক আগে বাংলাদেশে বসবাসকারী এক ব্যক্তির কাছ থেকে জমিটি কিনেছিলেন। সেই জমির মালিক কয়েক বছর আগে মারা গিয়েছেন৷

অসিত পালের দাবি, তার কাছে সমস্ত কাগজপত্র রয়েছে অথচ এদিন সকালে নকল দলিল দেখিয়ে অসিত পালকে মারধর করে অশোক দাস ও রমেশ দাস৷ জমির ফসলও নষ্ট করে দেয় তারা৷ আক্রান্ত অসিত পালকে বনগাঁ হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়। এদিন সকালে কাউন্সিলরের স্বামী অশোক দাস ও রমেশ দাসকে গ্রেফতারের দাবিতে রাস্তা অবরোধের নামে এলাকাবাসী৷ গ্রামবাসীদের অভিযোগ, গোবরডাঙা পুরসভার এক নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সবিতা দাসের স্বামী অশোক দাস ও রমেশ দাসকে ওই দিনই গ্রামবাসীরা ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

কিন্তু পুলিশ তাদের কিছু সময় পরে ছেড়ে দেয় এবং গ্রামবাসীদের অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে। তারই প্রতিবাদে পুলিশের ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে এদিন সকাল থেকে গাইঘাটা থানার ইছাপুর হাটখোলা বাজারে গাইঘাটা গোবরডাঙ্গা রোড অবরোধ করে গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসীদের দাবি অবিলম্বে পুলিশকে ক্ষমা চাইতে হবে এবং দোষীদের গ্রেফতার করতে হবে। তা না হলে অবরোধ চলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here