বাজারে আগুন দামে হাত পুড়ছে মধ্যবিত্তের, লক্ষ্মীপুজোর বাজেট কাট

0
385
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দুর্গাপুজো শেষ হতেই ঘরে ঘরে লক্ষ্মী পুজোর তোড়জোর চলছে৷ রাত পোহালেই কোজাগরী লক্ষ্মীপুজো। আগে থেকেই অনেকে বাজার সেরে রেখেছেন৷ কিন্তু মাথায় হাত! বাজার অগ্নিমূল্য৷ ফলে লক্ষ্মীপুজোতে কাটছাঁট! ভাবা যায়! না করে উপায় কী! লক্ষ্মীপুজো মানেই হরেক নাড়ু, মোয়া, ফল-ফলাহার, খিচুরি, নানারকম ভাজা-আরও কত কী! এবার সেই আয়োজন করতে গৃহকর্তার মাথায় হাত৷ গিন্নি বুঝে উঠতে পারছেন না অল্পে কী ভাবে নমো নমো করে পুজো সারবেন৷

ফল থেকে সবজি সব কিছুর দাম শুনেই চোখ কার্যত কপালে ওঠারই উপক্রম ক্রেতাদের। সপ্তাহভর জিনিসপত্রের দাম আকাশ ছোঁয়া না হলেও লক্ষ্মী পুজোর আগের দিন পকেটে কার্যত টান পড়ছে বলেই জানাচ্ছেন ক্রেতারা। অন্যদিকে বিক্রেতারা বলছেন টানা বৃষ্টিতের জেরেই জোগান কমেছে আর তার ফলেই বেড়েছে দাম।

ফল থেকে সবজি, একনজরে দেখে নেওয়া যাক দামগুলো

নারকেল- ৪০-৮০ টাকা/ পিস
আপেল ৮০-১২০টাকা কেজি
ন্যাসপাতি- ১০০-১২০টাকা/কেজি
পানিফল-৬০-৮০ টাকা/কেজি
আঙুর- ২৫০টাকা কেজি
সবজি
——
টমেটো- ৫০-৬০ টাকা/কেজি
চন্দ্রমুখী আলু- ২২টাকা/কেজি
শসা- ৬০-৭০টাকা/কেজি
ফুলকপি-৩৫-৪০টাকা পিস
পটল- ৮০টাকা কেজি
কুমড়ো- ৩০ টাকা কেজি

লক্ষ্মীপুজো বা অন্যান্য পুজোর আগে বাজারদর বরাবরই কিছুটা চড়া থাকে। তবে এবার তা ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে গিয়েছে বলেই মনে করছেন ক্রেতারা। সমস্ত জেলাতেই ছবিটা একইরকম। সবমিলিয়ে পুজোর আয়োজন করতে গিয়ে বিস্তর চিন্তায় পড়েছে মধ্যবিত্ত৷ ঘরে মা লক্ষ্মীকে বসত করাতে এবার অল্প আয়োজনেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here