Parul

মহানগর ডেস্ক: চলচ্চিত্র জগতে একবার বিয়ে করে সেই বিয়েটি শেষ পর্যন্ত টিকিয়ে রাখা খুবই কষ্টের। কিন্তু নিত্যদিন সামনে আসে একজন অভিনেত্রী বা একজন অভিনেতার বিয়ে ভেঙে, দ্বিতীয়বার অন্য কারো সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন এমন খবর। ঠিক সেই রকমই বর্তমানে টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা, বোঝেনা সে বোঝেনা সিরিয়ালের শুটিং চলাকালীন চুপিসারে আইনি মতে সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু ২০১৯ এর শেষ দিকেই তাদের বিচ্ছেদের খবর আসে। কিন্তু করোনার অতি মারির কারণে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ এখনো সম্পন্ন হয়নি। যার কারনে আজও খাতায়-কলমে স্বামী-স্ত্রী রয়েছেন সৌরভ ও মধুমিতা।

ads

সৌরভ চক্রবর্তীর সঙ্গে পুরোপুরি বিচ্ছেদ না হলেও নিজের ক্যারিয়ারের মূল ফোকাস রয়েছেন মধুমিতা। কয়েক মাস আগেই মধুমিতার অভিনীত ছবি চিনি মুক্তি পেয়েছে। যেখানে মধুমিতা ও সৌরভ দাস একসঙ্গে কাজ করেছেন। আর তারপরেই তাদের দুজনের সম্পর্ক নিয়ে গোটা টলিপাড়ায় গুঞ্জন শুরু হয়ে গিয়েছে। যেখানে শোনা গিয়েছে যে মধুমিতা ও সৌরভ দাস এর ঘনিষ্ঠতার কারণে নাকি মধুমিতা ও সৌরভ এর সম্পর্কে ছেদ দেখা গিয়েছে। যদিও সৌরভ দাস এর সঙ্গে মধুমিতার এর সম্পর্ক নিয়ে কোনভাবেই মুখ খোলেননি সৌরভ চক্রবর্তী। এমনকি মধুমিতার সম্পর্কে এই ধরনের কথা গুজব হিসেবে দেখতে চান তার স্বামী।

সৌরভ চক্রবর্তী একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, এই রটনা কতটা সত্যি, কতটা মিথ্যে সেটা নিয়ে ভাবার সময় আমার নেই। হাতে একের পর এক কাজ রয়েছে। যদিও বলে রাখা ভাল মধুমিতার স্বামী অর্থাৎ সৌরভ চক্রবর্তী অভিনেতার সঙ্গে সঙ্গে একজন পরিচালক। এই প্রেমের গুঞ্জন প্রসঙ্গে মধুমিতা জানিয়েছে, আমার প্রাক্তন স্বামীর নাম সৌরভ। আর সাধারন মানুষ সেখান থেকেই গুজব রটাচ্ছে। সৌরভ দাস এর সঙ্গে আমার একটা পেশাদার সম্পর্ক রয়েছে। ওর সাথে আমি চিনি এর মতো ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছি। ব্যস! একা মহিলা মানেই যখন খুশি যার সঙ্গে খুশি তার নাম জড়িয়ে দেওয়া যায়। এটা ভীষণ অসম্মানজনক ও অনুচিত। অন্যদিকে সৌরভ দাস এই গোটা বিষয়টি গুজব হিসেবে উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, মধুমিতা তার ভাল বন্ধু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here