ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উত্তরপ্রদেশের মগহর জেলায় সন্তকবীর ৫০০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাকে শ্রদ্ধা জানাতে পৌঁছে গেছেন। কিন্তু তার আগেই এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে এসে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ নয়া বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। সন্তকবীরের মাজারের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি তাঁকে মাথায় ফেজ টুপি পরতে অনুরোধ করলে টুপি পরতে প্রত্যাখ্যান করেন তিনি। সূত্রের খবর, মোদী যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তখন তিনিও একবার এধরনের টুপি পরতে অস্বীকার করেছিলেন। এ নিয়ে তখন অনেক বিতর্কের সৃষ্টিও হয়েছিল। যাই হোক, এদিন এখানে মোদী সন্তকবীরের সমাধির ওপর ফুল এবং চাদর চড়ালেন এবং কবির অ্যাকাডেমির শিলান্যাস করলেন। এই অ্যাকাডেমিটি তৈরি করতে প্রায় ২৪ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে।

বিজেপির এই কার্যক্রমকে ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের প্রচারের প্রথম ধাপ হিসেবে বিশিষ্ট মহল থেকে মনে করা হচ্ছে। ২০১৯ এর আগে মোদীর এই কার্যক্রম সংখ্যালঘুদের ভোট কাছে টানার উদ্দেশ্যেই তাঁর এই পদক্ষেপ বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে ২০১৪ সালে বারাণসী থেকেই লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়িয়ে ছিলেন এবং উত্তরপ্রদেশে বিজেপির মূল প্রচার কেন্দ্র হিসেবে বারাণসীকেই করেছিল। কবীরের সমাধিস্থলটি শিগগিরই তৈরি হচ্ছে এক আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান হিসেবে। যাতে দেশ বিদেশের মানুষরা তাঁর কীর্তি সম্পর্কে জানতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here