মহানগর ডেস্ক: দেশে আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। দৈনিক করণা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে তিন লক্ষ। করোনা সংক্রমনের পাশাপাশি বেড়েছে মৃতের সংখ্যা। হাসপাতালে নেই বেড, অক্সিজেনের ঘাটতি চারিদিকে। ভয়ংকর অবস্থার সম্মুখীন বিভিন্ন রাজ্য। দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। এই পরিস্থিতি কিছুটা সামাল দিতে গত সপ্তাহে দিল্লিতে জারি হয়েছিল লকডাউন। তবে তাতেও সংক্রমণ কমার কোনও লক্ষণ না দেখে আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হলে দিল্লির লকডাউন।

করোনা পরিস্থিতিতে গত সপ্তাহ থেকে আগামী সোমবার পর্যন্ত রাজধানীতে জারি করা হয়েছিল লকডাউন। তবে পরিস্থিতির উন্নতি না দেখে পুনরায় লকডাউন ঘোষণা করল দিল্লি সরকার। লকডাউন শেষ হওয়ার আগেই রবিবার এক ভিডিয়ো বার্তায় এই ঘোষণা করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি জানিয়েছেন, ‘পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হচ্ছে। হাসপাতালে বেড নেই। অক্সিজেনের ঘাটতি রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ চাইছেন লকডাউন এর মেয়াদ যেন আরও বাড়ানো হয়। সেই অনুরোধ মেনে নিয়ে আরও এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন জারি করা হলো।’

 প্রসঙ্গত, দিল্লিতে গত ২৪ ঘন্টায় ২৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। গত এক সপ্তাহ ধরে দেখা দিয়েছে ভয়ঙ্কর অক্সিজেন সঙ্কট। ইতিমধ্যেই অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের কাছে অক্সিজেন চাইলে ভৎসনা মিলেছে। ফলে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে অন্যান্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের থেকেও অক্সিজেনের আবেদন করেছেন কেজিওয়াল। এছাড়াও পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে কেন্দ্র কতটা অক্সিজেন হাসপাতালে সরবরাহ করছে সেই রেকর্ড রাখার জন্য একটি পোর্টাল তৈরি করা হয়েছে। এখানেই অক্সিজেন সরবরহের আপডেট পাওয়া যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here