গুড়াপে গুলিচালনার ঘটনায় এনআইএ’কে দিয়ে তদন্তের আশ্বাস লকেটের

0
127
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, চুঁচুড়া: ‘তৃণমূলের নেতা খুন হয়েছেন নিজেদেরই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে। এই খুনের ঘটনার সঙ্গে বিজেপি মোটেও জড়িত নয়। গোটা ঘটনাটাই বিজেপির বিরুদ্ধে অপপ্রচার। কাটমানি নিয়ে বিবাদের জেরে তৃণমূলেরই দুই গোষ্ঠীর মধ‍্যে বিবাদ, আর তার জেরেই খুন হয়েছেন ওই তৃণমূল নেতা। বিজেপির কেউ যুক্ত নয়‌ ওই ঘটনায়। আমরাও চাই তৃণমূল নেতা খুনের প্রকৃত তদন্ত হোক। প্রকৃত দোষী গ্ৰেপ্তার হোক।’ বক্তা হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। শনিবার ব্যান্ডেল স্টেশনে দুষ্কৃতীদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান স্থানীয় তৃণমূল নেতা দিলীপ রাম। তিনি ব্যান্ডেল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নীতু সিংয়ের স্বামী ও চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদারের ঘনিষ্ট। জনপ্রিয় এই নেতা খুন হওয়ার ঘটনায় অসিতবাবু সরাসরি বিজেপির দিকে আঙুল তোলেন ও লকেটের কাছ থেকে জবাবদিহি চান। তার জেরেই লকেট জানান, ওই খুনের সঙ্গে বিজেপির কোন যোগ নেই।

হুগলীর গুড়াপে নিহত বিজেপি কর্মী সাধন বাউল দাস ও পুলিশের গুলিতে আহত বিজেপি কর্মী জয়চাঁদ মালিকের পরিবারের সঙ্গে এদিন দেখা করেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ‍্যয়। তারপর গুড়াপ থানায় গিয়ে দুটি ঘটনার প্রকৃত তদন্তের দাবি ও দোষী পুলিশ অফিসারের শাস্তির দাবি নিয়ে থানার অফিসারদের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর গুড়াপের প্রসঙ্গে বলেন, ‘শাসকদল তৃণমূল গুন্ডাদের ছেড়ে পুলিশকে দিয়ে গুলি করাচ্ছে। আমি প্রশাসনকে বলেছি দুটি ঘটনার যাতে প্রকৃত তদন্ত হয় তা দেখতে। পুলিশ দোষী তৃণমূল কর্মী ও দোষী পুলিশকর্মীদের বিরুদ্ধে দ্রুত তদন্ত করে ব‍্যবস্থা না নিলে আমরা বিষয়টা দিল্লীকে জানাবো। দরকার পরলে এনআইএ টিম দিয়ে গুড়াপের ঘটনার তদন্তের দাবি জানাব।’

উল্লেখ‍্য এদিনকেই ব‍্যান্ডেলে প্রকাশ্যে দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হন দিলীপ রাম। তারপরেই চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার সরাসরি বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ‍্যয়ের দিকে আঙুল তুলে বলেন, লকেটের মদতেই সন্ত্রাস হচ্ছে হুগলিতে। যদিও এদি ঘটনাটিকে লকেট তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বলেই এদিন চিহ্নিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here