অমরপ্রেমের সাক্ষী থাকল সোনাপড়ার জঙ্গল! বাজ পড়ে মৃত প্রেমিক-প্রেমিকা

0
20
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝাড়গ্রাম: সোমবার বিকেলের পরে ঝাড়গ্রাম জেলার বেলিয়াবেড়া থানা এলাকায় বাজ পড়ে মৃত্যু হল এক পুরুষ ও এক মহিলার। ঘটনাটি খানিকটা চমকানোর মতো। কারন জানা গিয়েছে, লুকিয়ে জঙ্গলে প্রেম করতে গিয়ে ওই দুই ইটভাটা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে। ঘটনাচক্রে দুইজনই আবার বিবাহিত। সোমবার বিকেলে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে বেলিয়াবেড়া থানার পুলিশ গোপীবল্লভপুর-২ ব্লকের বিডিও অফিসের পিছনে একটি জঙ্গল থেকে ওই দুইজনের দেহ উদ্ধার করে।

জানা গিয়েছে, বিডিও অফিসের পিছনে সোনাপড়া নামক একটি এলাকা আছে। সেখানে ইটভাটা লাগোয়া একটি জঙ্গল থেকে একজন পুরুষ এবং এক মহিলার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মৃতরা হল যতীন সিং(৩৩) এবং কুনকি সিং (২৫)। এদের বাড়ি বেলিয়াবেড়া থানার বনকাটি এবং সোনাপড়া এলাকায়। স্থানীয় সুত্রে খবর এদের দুজনের মধ্যে একটি সম্পর্ক ছিল। তারা প্রায়ই এই জঙ্গলে দেখা করতে আসত। এদিন বিকেলেও তারা দেখা করতে এসেছিল। পুলিশ জানিয়েছে বাজ পড়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। এদের দুজনের দেহ আলিঙ্গনরত অবস্থায় পড়েছিল। ছেলেটির বুক পকেটের অংশ পুড়ে গিয়েছিল। পকেটের টাকা বেশ কিছুটা পোড়া ছিল। মেয়েটিরও শরীরে পোড়া দাগ দেখা গিয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছে। এরা স্থানীয় ইটভাটাতে কাজ করতে বলে জানা গিয়েছে৷

kolkata bengali news

অন্য দিকে সোমবারই বেলা বারোটা নাগদ লালগড় থানা এলাকায় জমিতে কাজ করার সময় বাজ পড়ে মারা গিয়েছেন আরেক মহিলা। ঘটনাটি লালগড়ের ভাঙ্গাডালি এলাকায় ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে মৃত ওই মহিলার নাম নীলিমা শবর (৩০), বাড়ি ওই গ্রামেই। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার গ্রামের পাশে জমিতে ধানের চারা লাগানোর কাজ করছিলেন নীলিমা। দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ হঠাৎ বজ্রপাত সহ বৃষ্টিপাত শুরু হয়। ওই সময় বাজ পড়ে মৃত্যু হয় তার। জমিতে কাজ করতে থাকা অন্যান্য মানুষজনেরা তাকে উদ্ধার করে লালগড় গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। তারপর ময়নাতদন্তের জন্য ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতের মর্গে পাঠিয়ে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here